বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দেরি হলেও কেন বিমানে উঠতে দেওয়া হবে না? স্পাইসজেটের কর্মীকে থাপ্পড় পুলিশকর্মীর
দেরি হলেও কেন বিমানে উঠতে দেওয়া হবে না? স্পাইসজেটের কর্মীকে থাপ্পড় পুলিশকর্মীর (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
দেরি হলেও কেন বিমানে উঠতে দেওয়া হবে না? স্পাইসজেটের কর্মীকে থাপ্পড় পুলিশকর্মীর (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

দেরি হলেও কেন বিমানে উঠতে দেওয়া হবে না? স্পাইসজেটের কর্মীকে থাপ্পড় পুলিশকর্মীর

  • পুলিশকর্মীকে আর বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি।

দেরিতে বিমানবন্দরে পৌঁছেছিলেন। নিয়ম মোতাবেক তাঁকে বোর্ডিং পাস দেননি স্পাইসজেটের এক কর্মী। সেজন্য ওই কর্মীকে চড় মারার অভিযোগ উঠল সাব-ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার এক পুলিশ আধিকারিকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি আমদাবাদের।

আমদাবাদ বিমানবন্দরের আধিকারিকরা সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানান, মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) গুজরাতে পুলিশের এক সাব-ইন্সপেক্টর-সহ তিনজন বিমানবন্দরে আসেন। তাঁদের কাছে দিল্লিগামী এসজি-৮১৯৪ উড়ানের টিকিট ছিল। নির্ধারিত সময়ের পরে টিকিট কাউন্টারে যান তাঁরা এবং বোর্ডিং পাস নিয়ে উড়ান সংস্থার কর্মীর সঙ্গে তর্ক জুড়ে দেন। দেরি হওয়ার নিয়ম মোতাবেক তাঁদের বোর্ডিং পাস দিতে অস্বীকার করেন ওই কর্মী। 

উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের মধ্যেই ওই কর্মীকে থাপ্পড় মারেন ওই সাব-ইন্সপেক্টর। তার জেরে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। বিমানবন্দরের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ডাক পড়ে বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআইএসএফের। তিন যাত্রী এবং ওই উড়ান সংস্থার কর্মীকে স্থানীয় পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। 

সূত্রের খবর, উড়ান সংস্থার কর্মী এবং যাত্রীরা বিষয়টি নিজেদের মধ্যে মিটমাট করে নেন। সাব-ইন্সপেক্টর-সহ তিন যাত্রীর বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযোগ তুলে নেওয়া হয়। তবে তাঁদের আর বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি।

বন্ধ করুন