বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Weather Update: ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের দিকের দৌড়ে ভারতের কোন শহর এগিয়ে? তাপমাত্রার অঙ্ক ছ্যাঁকা দিচ্ছে
গরমের জেরে সারা দেশে ত্রাহি ত্রাহি রব। (PTI Photo)(PTI04_11_2022_000068B) (PTI)

Weather Update: ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের দিকের দৌড়ে ভারতের কোন শহর এগিয়ে? তাপমাত্রার অঙ্ক ছ্যাঁকা দিচ্ছে

  • দেখে নেওয়া যাক সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রার নিরিখে ভারতের কোন শহরগুলি এগিয়ে রয়েছে। সেই শহরের নিরিখে রাজ্যগুলিতে গরমের ছ্যাঁকা কতটা তা আঁচ করে নেওয়া যাক। এদিকে, তাপপ্রবাহের সঙ্গে সঙ্গে এই সমস্ত এলাকায় রয়েছে বিদ্যুতের চাহিদা অনুযায়ী কমতি। বারবার লোডশেডিংয়ে সমস্যায় পড়ছেন বহু মানুষ। হরিয়ানা, বিহার,পঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খণ্ডে দেখা গিয়েছে প্রভূত বিদ্যুৎ সংকট সমস্যা।

ক্রিজের একদিকে তাপপ্রবাহ অন্যদিকে বেড়ে চলা তাপমাত্রার অঙ্ক, দুইয়ের যুগলবন্দিতে কার্যত দাপুটে ইনিংস ধরে রেখেছে গরম! এবারের গরম কার্যত শুরু থেকেই চালিয়ে ব্যাটিং করছে। মার্চের মাঝামাঝি থেকে উত্তরভারতে জ্বালাময়ী ব্যাটিং নিদর্শন দিয়ে এবার তাপপ্রবাহকে ক্রিজে নামিয়ে লম্বা ইনিংসের পথে এগিয়ে যাচ্ছে দেশের আবহাওয়া! আর এই গরমে ধারাশায়ী মানুষ। ইতিমধ্যেই আইএমডির তরফে জানানো হয়েছে তাপপ্রবাহ কোন কোন এলাকাকে আগামী কয়েকদিন গ্রাস করতে চলেছে। ভারতের কোন কোন শহরে সবচেয়ে বেশি রয়েছে তাপমাত্রা দেখে নেওয়া যাক।

দেখে নেওয়া যাক ভারতে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রার নিরিখে কোন শহরগুলি এগিয়ে রয়েছে। সেই শহরের নিরিখে রাজ্যগুলিতে গরমের ছ্যাঁকা কতটা তা আঁচ করে নেওয়া যাক। তাপপ্রবাহ শরীরে কোন ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে? ভয়াবহ অসুস্থতা কাটাতে কিছু টিপস

দেশে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা কোন কোন শহরে (২৯ এপ্রিলের তাপমাত্রা অনুযায়ী):-

বান্দা (উত্তরপ্রদেশ)- ৪৭.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস

প্রয়াগরাজ (উত্তরপ্রদেশ)-৪৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস

শ্রীগঙ্গানগর (রাজস্থান)-৪৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস

চন্দ্রপুর (মহারাষ্ট্র)-৪৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস

নউগাওঁ (মধ্যপ্রদেশ), ঝাঁসি (উত্তরপ্রদেশ)- ৪৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস

নজফগড় ও পিতামপুরা (দিল্লি)-৪৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস

গুরুগ্রাম- ৪৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস

ডালটনগঞ্জ (ঝাড়খণ্ড), রিজ (দিল্লি)- ৪৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস

ওয়ার্ধা (মহারাষ্ট্র)-৪৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস

খাজুরাহো (মধ্যপ্রদেশ)-৪৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস

ফলে উপরোক্ত পরিসংখ্যান থেকে স্পষ্ট যে উত্তরপ্রদেশের প্রায় সর্বত্রই প্রবল তাপমাত্রা। তার পরই রয়েছে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ঝাড়খণ্ডের মতো রাজ্য। এদিকে, তাপপ্রবাহের সঙ্গে সঙ্গে এই সমস্ত এলাকায় রয়েছে বিদ্যুতের চাহিদা অনুযায়ী কমতি। বারবার লোডশেডিংয়ে সমস্যায় পড়ছেন বহু মানুষ। হরিয়ানা, বিহার,পঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খণ্ডে দেখা গিয়েছে প্রভূত বিদ্যুৎ সংকট সমস্যা। এরই মাঝে এমন ভাবে শহরগুলি ধীরে ধীরে ৪৫ ডিগ্রির অঙ্ক পার করে ৫০ দিকের দৌড়ে এগিয়ে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে! সব মিলিয়ে বৃষ্টির শরণাপন্ন গোটা দেশের গরমে বিধ্বস্ত মানুষ।

বন্ধ করুন