বাড়ি > ঘরে বাইরে > পরকীয়া বিরোধী আইন ফের চালু করার আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট
পরকীয়া সম্পর্ক শাস্তিযোগ্য অপরাধের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার প্রয়োজন নেই, জানাল সুপ্রিম কোর্ট। 
পরকীয়া সম্পর্ক শাস্তিযোগ্য অপরাধের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার প্রয়োজন নেই, জানাল সুপ্রিম কোর্ট। 

পরকীয়া বিরোধী আইন ফের চালু করার আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট

  • শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, ১৫৮ বছরের প্রাচীন আইন বাতিল করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার প্রয়োজন নেই।

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ককে অপরাধ হিসেবে গ্রাহ্য না করার জন্য ১৫৮ বছরের প্রাচীন আইন বাতিল করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার প্রয়োজন নেই। তাই সেই উদ্দেশে করা আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট। 

প্রায় ২০ মাস আগে ভিক্টোরিও যুগের আদর্শ মেনে তৈরি ওই আইন বাতিল করার শীর্ষ আদালতের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আবেদন করা হয়। শাস্তিযোগ্য অপরাধের অন্তর্ভুক্ত বাতিল হওয়া আইনটি ফের শ্রেণিভুক্ত করার উদ্দেশে আবেদন জানান একটি আধ্যাত্মিক প্রতিষ্ঠান এবং রবি কুমার নামে জনৈক নাগরিক। তাঁদের যুক্তি, আদালতের এই সিদ্ধান্ত পরিবারের সংজ্ঞাবিরোধী।

আবেদনের শুনানিতে প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবডে, বিচারপতি আর এফ নরিম্যান, বিচারপতি এ এম খানউইলকর, বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এবং বিচারপতি ইন্দু মালহোত্রার সুপ্রিম কোর্ট বেঞ্চ জানিয়েছেন, ‘আমরা রিভিউ পিটিশন ভালো করেই পড়ে দেখেছি এবং সেই সংক্রান্ত নথিপত্রও যাচাই করে দেখা হয়েছে। কিন্তু আমরা এই আবেদন গ্রাহ্য করার কোনও গুরুত্বপূর্ণ কারণ খুঁজে পাইনি। এই কারণে রিভিউ পিটিশনগুলি খারিজ করা হল।’

গত ২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারা খারিজ করে ভিক্টোরীয় যুগের ওই আইন বাতিল করে সুপ্রিম কোর্ট। ওই আইন মোতাবেক, স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় যুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করা যেত। আইনটি খারিজ করার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত বিদেশে বসবাসকারী জনৈক জোসেফ শাইন। 

তাঁর যুক্তি ছিল, পারিবারিক সম্পর্ক ও সংহতি বজায় রাখতে চাইলে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কারণে স্বামী ও স্ত্রীকে পরস্পরের বিরুদ্ধে মামলা করার অধিকার দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু পুরনো আইনে শুধুমাত্র স্বামীরই সেই অধিকার দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, আইন মোতাবেক স্ত্রীকে অচেনা ব্যক্তির সঙ্গে যৌন মিলনের অনুমতি দেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে স্বামীকে। এই বিষয়ে স্ত্রীর তরফে কোনও অনুমোদনের সুযোগ রাখা হয়নি।

বুধবার আবেদন দু’টি সুপ্রিম কোর্ট খারিজ করার পরে জোসেফ শাইনের আইনজীবী কালীশ্বরম রাজ হিন্দুস্তান টাইমস-কে জানিয়েছেন, ‘আবেদন খারিজের জেরে বিশ্বব্যাপী ব্যক্তিস্বাধীনতা আন্দোলনের প্রতি বড় সমর্থন দেখানো হল। এই সিদ্ধান্ত নাগরিকের ব্যক্তিগত জীবনে রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপ রোধ করতে সাহায্য করবে।’

চিন, জাপান, ব্রাজিল, নিউ জিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, স্কটল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্ক, প্রান্স, জার্মানি, অস্ট্রিয়া, আয়ার্ল্যান্ড প্রজাতন্ত্র, বার্বাডোজ, বার্মুডা, জামাইকা, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগো এবং সেশেলস-এর মতো দেশে পরকীয়া সম্পর্ক অপরাধ হিসেবে বিবেচ্য নয়। 

আ আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মলদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান, ফিলিপাইন্স, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, আমেরিকার কয়েকটি রাজ্য, আলজিরিয়া, কঙ্গো গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র, মিশর, মরক্কো এবং নাইজিরিয়ার কিছু অংশে এখনও বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়।

বন্ধ করুন