বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > SC on Freebies: 'দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি এবং জনকল্যাণের মধ্যে ভারসাম্য আনতে হবে', ফ্রি-এর প্রতিশ্রুতি নিয়ে পর্যবেক্ষণ SC-র

SC on Freebies: 'দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি এবং জনকল্যাণের মধ্যে ভারসাম্য আনতে হবে', ফ্রি-এর প্রতিশ্রুতি নিয়ে পর্যবেক্ষণ SC-র

 প্রতীকী ছবি ; এএনআই (ANI)

শীর্ষ আদালতের কথায়, নির্বাচনী প্রচারে নেমে রাজনৈতিক দলগুলির বিনামূল্যের এই প্রতিশ্রুতি দেওয়ার প্রবণতা একটি গুরুতর সমস্যা। শীর্ষ আদালতের যুক্তি, বিনামূল্যের এই প্রতিশ্রুতির কারণে ভারতীয় অর্থনীতির ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

ভোটারদের মন জয় করতে একেক সময় কী না কী প্রতিশ্রুতি দিয়ে থাকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। বিনামূল্যের রেশন, বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে ফোন, ল্যাপটপ, বাইক... এরকম উদাহরণ অনেক আছে। রাজনৈতিক দলগুলির এই ‘অভ্যাস’কে চ্যালেঞ্জ করে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়। সেই মামলার শুনানি চলাকালীন বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা একটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যবেক্ষণ করলেন। শীর্ষ আদালতের কথায়, নির্বাচনী প্রচারে নেমে রাজনৈতিক দলগুলির বিনামূল্যের এই প্রতিশ্রুতি দেওয়ার প্রবণতা একটি গুরুতর সমস্যা। শীর্ষ আদালতের যুক্তি, বিনামূল্যের এই প্রতিশ্রুতির কারণে ভারতীয় অর্থনীতির ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, বিজেপি নেতা অশ্বিনী কুমার উপাধ্যায় সম্প্রতি এক জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে দাবি করেন, রাজনৈতিক দলগুলি যেভাবে বিনামূল্যের প্রতিশ্রুতি দেয় তা রুখতে নির্দেশ দেওয়া উচিত। তিনি আর্জি রাখেন যে এই ধরনের বিনামূল্যের প্রতিশ্রুতি দেওয়া দলের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা উচিত। এই মামলার শুনানি চলছে প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা এবং বিচারপতি কৃষ্ণা কুমারীর বেঞ্চে।

আরও পড়ুন: বিশ্ব শান্তির জন্য পোপ-মোদীর নেতৃত্বে ৩ সদস্যের কমিটি গঠনের সুপারিশ মেক্সিকোর

শুনানি চলাকালীন বৃহস্পতিবার প্রধান বিতারপতি এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘বিনামূল্যে পরিষেবা দানের বিষয়টিকে সমস্যা বলে কেউ গণ্যই করে না। অথচ, এটা একটা গুরুতর বিষয়। যারা এর থেকে সুবিধা পাচ্ছে তারাও এটা চাইছে। এর প্রেক্ষিতে অনেকেই বলেন যে তারা কর দিচ্ছেন। সেই করের টাকা উন্নয়নমূলক প্রক্রিয়ায় ব্যবহার করতে হবে। এই আবহে এটা একটা গুরুতর সমস্যা। তাই উভয় পক্ষের বক্তব্যই কমিটিকে শুনতে হবে। ভারত এমন একটি দেশ, যেখানে দারিদ্র্য রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারেরও ক্ষুধার্তদের মুখে খাদ্য তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। কিন্তু, দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি এবং জনগণের কল্যাণের মধ্যে ভারসাম্য আনতে হবে।’

আদালতের তরফে আরও বলা হয়, ‘সুবিধাবঞ্চিতদের আর্থ-সামাজিক কল্যাণমূলক পরিকল্পনাগুলিকে বিনামূল্যের পরিষেবা বলা যায় না। সমাজের কিছু মানুষকে বিনামূল্যে বিদ্যুত, জল এবং পরিবহণের সুবিধা দেওয়াটা আবশ্যক।’ এদিকে শুনানিতে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, ‘আমার প্রস্তাব এই বিষয়ে একটি কমিটি তৈরি করা হোক। তাতে কেন্দ্রীয় সরকারের একজন সচিব, সব রাজ্য সরকারের সচিবরা, প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের একজন করে প্রতিনিধি, নীতি আয়োগের প্রতিনিধি, অর্থ কমিশনের সদস্য, একজন করদাতা।’ আগামী ১৭ অগস্ট এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

শুক্র চললেন কুম্ভ রাশিতে, ৭ দিন পর থেকেই সৌভাগ্য সপ্তমে পৌঁছোবে ৪ রাশির ‘কয়েকটি অঙ্ক ঘোরানো’, উচ্চমাধ্যমিকের কস্টিংয়ের প্রশ্ন কেমন হল? কত নম্বর উঠবে? শুভেন্দু অধিকারীর গ্রেফতারি চাই, শাহজাহান গ্রেফতার হতেই দাবি তার ভাইয়ের 'নেগেটিভ'-এর একফ্রেমে রাহুল-দেবলীনা, প্রকাশ্যে বাপ্পার নতুন ছবির ফার্স্ট লুক মেসির নাম শুনতেই অশালীন অঙ্গভঙ্গি, জরিমানা সহ এক ম্যাচ সাসপেন্ড রোনাল্ডো ৪ দিন পর লক্ষ্মীবারে কমল সোনার দাম, আজ শহরে ২২ ক্যারাট হলমার্ক ধাতুর রেট কত? ভালো ছবি ওঠে এমন ক্যামেরা ফোন খুঁজছেন? ফটোগ্রাফির জন্য সেরা ফোনগুলি দেখে নিন বিধাননগর মেলায় স্টল বসানো নিয়ে পুর কর্তৃপক্ষের আপত্তি, ক্ষুব্ধ মেয়র পারিষদ বিন্দুমাত্র ফাঁক নেই আয়োজনে! প্রকাশ্যে কাঞ্চন-শ্রীময়ীর রাজকীয় বিয়ের কার্ড IND vs ENG 5th Test: ধরমশালায় টেস্ট অভিষেকের অপেক্ষায় পাডিক্কাল, বাদ পড়বেন কে?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.