বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > CAA বিরোধীদের থেকে সংগৃহীত ক্ষতিপূরণ ফেরানোর নির্দেশ, যোগী সরকারকে ধাক্কা SC-র
দিল্লিতে যোগী আদিত্যনাথ (ছবি সৌজন্যে ব্লুমবার্গ) (HT_PRINT)

CAA বিরোধীদের থেকে সংগৃহীত ক্ষতিপূরণ ফেরানোর নির্দেশ, যোগী সরকারকে ধাক্কা SC-র

  • উত্তরপ্রদেশ রিকভারি অফ ড্যামেজেস টু পাবলিক অ্যান্ড প্রাইভেট প্রপার্টি অ্যাক্টের আওতায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে পারবে যোগী সরকার।

সিএএ বিক্রোভকারীদের থেকে কোটি কোটি টাকা ক্রতিপূরণ সংগ্রহ করেছিল উত্তরপ্রদেশ সরকার। শুক্রবার যোগী আদিত্যনাথের নেতৃত্বাধীন সরকারকে সেই টাকা ফেরাতে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এবং সূর্য কান্তের সুপ্রিম বেঞ্চ বলে যে রাজ্য সরকার অভিযুক্ত প্রতিবাদকারীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা কোটি কোটি টাকার পুরো অর্থই ফেরত দেবে। বেঞ্চ অবশ্য রাজ্য সরকারকে উত্তরপ্রদেশ রিকভারি অফ ড্যামেজেস টু পাবলিক অ্যান্ড প্রাইভেট প্রপার্টি অ্যাক্টের আওতায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার স্বাধীনতা দিয়েছে।

এর আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে জড়িত ব্যক্তিদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার কথা ঘোষণা করে আদালতের ‘ধমক’ খেতে হয়েছিল যোগী আদিত্যনাথের সরকারকে। এই আবহে সিএএ বিরোধী বিক্ষোভকারীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার পরিকল্পনা ত্যাগ করতে বাধ্য হয় উত্তরপ্রদেশ সরকার।

বিক্ষোভকারীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে ইতিমধ্যেই নোটিশ পাঠিয়েছিল যোগী সরকার। তবে সেই সব নোটিশ প্রত্যাহার করছে যোগী সরকার। ট্রাইবুনালের প্রধান পদে থাকা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বিভিন্ন জেলায় সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে ক্ষতিপূরণ সংগ্রহের জন্য ২৭৪টি নোটিশ জারি করেছিলেন। লখনউতে বিক্ষোভকারীদের জন্য জারি করা হয়েছিল ৯৫টি নোটিশ।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের শেষ ও ২০২০ সালের শুরুর দিকে সিএএ বিরোধী বিক্ষোভ বহু জায়গায় হিংসাত্মক রূপ ধারণ করেছিল। তাতে সরকারে সম্পত্তি নষ্ট করা হয়েছিল প্রচুর পরিমাণে। এই আবহে ২০১১ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্টের একটি রায়ের উপর ভিত্তি করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ পুনরুদ্ধার করতে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নোটিশ পাঠিয়েছিল উত্তরপ্রদেশ সরকার। এদিকে ২০০৯ সালেই এই বিষয়ে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ রয়েছে যে একজন বিচারপতিই এই ক্ষতির পরিমাণ সহ অন্যান্য বিষয় খতিয়ে দেখবেন। এদিকে উত্তরপ্রদেশের ক্ষেত্রে তেমন কিছু হয়নি। কার্যত সেই নিয়ম ভাঙা হয়েছে। আর তা নিয়েই উষ্মা প্রকাশ আদালতের। এই আবহে চাপের মুখে নোটিশ প্রত্যাহার সরকারের।

বন্ধ করুন