বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Supreme Court on Morbi Tragedy: 'তদন্তে নজরদারি চালানো হোক', মৌরবি নিয়ে গুজরাট হাই কোর্টকে বলল সর্বোচ্চ আদালত

Supreme Court on Morbi Tragedy: 'তদন্তে নজরদারি চালানো হোক', মৌরবি নিয়ে গুজরাট হাই কোর্টকে বলল সর্বোচ্চ আদালত

গুজরাটের মৌরবি সেতুর রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব ছিল ওরেভা নামক সংস্থার ওপর। (REUTERS)

গুজরাটের মৌরবি সেতু দুর্ঘটনাটি ‘দুঃখজনক ঘটনা’ বলে আখ্যা দিল সুপ্রিম কোর্ট। এই আবহে এই ঘটনায় গুজরাট হাই কোর্টকে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে পদক্ষেপ করতে বলে সর্বোচ্চ আদালত।

গুজরাটের মৌরবি সেতু দুর্ঘটনাটি ‘দুঃখজনক ঘটনা’ বলে আখ্যা দিল সুপ্রিম কোর্ট। এই আবহে এই ঘটনায় গুজরাট হাই কোর্টকে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে পদক্ষেপ করতে বলে সুপ্রিম কোর্ট। তদন্তের গতিপ্রকৃতির ওপর নজরদারি চালাতেও বলা হয় উচ্চ আদালকে। শীর্ষ আদালত আজ বলে, এই দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের যথাযথ ক্ষতিপূরণে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে উচ্চ আদালতকে। এদিকে মৌরবি বিপর্যয় নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ আবেদনকারীদের হাই কোর্টের আস্থা রাখতে বলে সুপ্রিম কোর্ট।

গত ৩০ অক্টোবর মৌরবির ঘটনায় অন্তত ১৪১ জনের মৃত্যু হয়। প্রসঙ্গত, গত ২৬ অক্টোবর গুজরাটি নববর্ষ উপলক্ষে সেতুটি খুলে দেওয়া হয়েছিল জনসাধারণের জন্য। এর আগে গত ৭ মাস ধরে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সেতুটি বন্ধ ছিল। ঘড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা ওরেভা এই সেতুর রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে ছিল। ঘটনার পর ওরেভার ম্যানেজার সহ মোট ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিকে এই সেতু নিয়ে আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়েছে মৌরবি পুরসভা। ওরেভা গোষ্ঠীর সঙ্গে চুক্তিতে গলদ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সেতু দেখভালের জন্য ওরেভা গ্রুপ আর মৌরবি পুরসভার মধ্যে দেড় পাতার চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল। এই আবহে আদালতের পর্যবেক্ষণ, মৌরবির জেলাশাসককে ওরেভার তরফে নানাভাবে ভুল বুঝিয়ে একটি চিঠি লেখা হয়েছিল, যে তাদের সঙ্গে দীর্ঘকালীন চুক্তি না করলে তাঁরা যথাযথ সংস্কার করতে পারবে না। এদিকে অ্যাডভোকেট জেনারেল কমল ত্রিবেদী আদালতে জানিয়েছিলেন, ব্রিজটি খুলে দেওয়ার আগে কী ধরনের সংস্কার কাজ হয়েছিল তা নিয়ে কোনও আগাম তথ্য পুরসভাকে জানায়নি ওরেভা। এদিকে মৌরবির ঘটনার জেরে সংস্কারের দায়িত্বে থাকা সংস্থার বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে নাকি তা জানতে চেয়েছে হাই কোর্ট।

বন্ধ করুন