বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ৫ অগস্ট সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির এজলাসে উঠছে পেগাসাস কাণ্ডের মামলা
পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ (ফাইল ছবি : পিটিআই) (PTI)

৫ অগস্ট সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির এজলাসে উঠছে পেগাসাস কাণ্ডের মামলা

  • সুপ্রিম কোর্টে উঠতে চলেছে পেগাসাস কাণ্ডের মামলা। মামলার শুনানি হবে আগামী ৫ অগস্ট।

সুপ্রিম কোর্টে উঠতে চলেছে পেগাসাস কাণ্ডের মামলা। মামলার শুনানি হবে আগামী ৫ অগস্ট। প্রসঙ্গত, ইজরায়েলি স্পাই সফ্টওয়্যার পেগাসাস ব্যবহার করে ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রী, সাংবাদিক, সমাজকর্মী এবং বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ও বেসরকারি সংস্থার উপর গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে। সেই প্রেক্ষিতে জনস্বারর্থ0 মামলা দায়ের হয়। মামলা করেছেন দুই বর্ষীয়ান সাংবাদিকও। মামলাগুলি গ্রহণ করার পর অবশেষে আগামী বৃহস্পতিবার এর শুনানি শুরু হবে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি এনভি রমনার বেঞ্চেই এই মামলার শুনানি হবে।

পেগাসাস স্পাইওয়্যারকে আদতে সন্ত্রাসবাদীদের উপর নজরদারি চালানোর কাজে ব্যবহার হয়। এই কারণেই এই সফটওয়্যারটি তৈরি করেছিল ইজরায়েলি সংস্থা এনএসও গ্রুপ। কিন্তু, ভারত সহ ৫০টি দেশে পেগাসাসের অপব্যবহার হয়েছে বলে রিপোর্ট প্রকাশ হয় মিডিয়ায়। ভারতে এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বিরুদ্ধে দেশের গণতন্ত্রে আঘাত হানার অভিযোগ তুলেছে বিরোধী শিবির। যা নিয়ে যৌথ সংসদীয় কমিটি গঠন করে তদন্তের দাবি করেছে কংগ্রেস-সহ বিরোধীরা।

এদিকে পেগাসাসের জেরে সংসদের বাদল অধিবেশনেও কেন্দ্রকে তোপ দেগেছেন বিরোধীরা। প্রায় অচল রয়েছে সংসদ। সংসদের দুই কক্ষে কেন্দ্রের কাছে জবাব চাওয়া হয়েছে বিরোধীদের তরফে। কিন্তু, কেন্দ্রীয় সরকার পেগাসাস ব্যবহার করে কোনও ভারতীয় নাগরিকের উপর গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ উড়িয়েছে। তবে এই বিষয়ে আলোচনার পথে হাঁটেনি। যার জেরে রোজই উত্তাল হয়ে উঠছে সংসদ। মুলতুবি হচ্ছে অধিবেশন, বিঘ্নিত হচ্ছে সংসদীয় কাজকর্ম। তবে, তাও চুপ রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে পেগাসাস স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে আড়িপাতা হলে তা সম্পূর্ণভাবে সংবিধান বিরোধী বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। আর পেগাসাসের মতো স্পাইওয়্য়ার কেনার ক্ষেত্রে ইজরায়েলি নীতি অনুযায়ী, কেবলমাত্র কোনও দেশের সরকারই এই স্পাই সফ্টওয়্যার কিনতে পারবে। আর সেই মতো দেখতে গেলে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সম্মতি ছাড়া এই স্পাইওয়্যার কেনা সম্ভব নয় বলেই দাবি করেছে বিরোধীরা।

বন্ধ করুন