বাড়ি > ঘরে বাইরে > লকডাউনে অস্বাভাবিক বেশি BS-IV গাড়ি বিক্রি, সুপ্রিম নির্দেশে রেজিস্ট্রেশন স্থগিত
গাড়ি বিক্রির হারে অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে গরমিলের আভাস পেয়ে পদক্ষেপ করল শীর্ষ আদালত।
গাড়ি বিক্রির হারে অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে গরমিলের আভাস পেয়ে পদক্ষেপ করল শীর্ষ আদালত।

লকডাউনে অস্বাভাবিক বেশি BS-IV গাড়ি বিক্রি, সুপ্রিম নির্দেশে রেজিস্ট্রেশন স্থগিত

  • লকডাউনে বিক্রির পরিমাণ অস্বাভাবিক বেশি। মনে হচ্ছে কোনও প্রতারণামূলক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, সন্দেহ সুপ্রিম কোর্টের।

গত ৩১ মার্চের আগে পর্যন্ত বিক্রি হওয়া সমস্ত BS-IV গাড়ির রেজিস্ট্রেশনের উপরে স্থগিতাদেশ ঘোষণা করেছে সুপ্রিম কোর্ট। 

জানা গিয়েছে, লকডাউন ঘোষণা হওয়ার পরে ওই দিনের আগে পর্যন্ত গাড়ি বিক্রির হারে অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে গরমিলের আভাস পেয়েই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে শীর্ষ আদালত।

ফেডারেশন অফ অটো ডিলার্স-এর (FADA) তরফে এর আগে আদালতকে জানানো হয় যে, ওই সময়ে অধিকাংশ গাড়ি বিক্রি হয়েছে অনলাইন পদ্ধতিতে। তার জেরে কেন্দ্রীয় সরকারকে তার ই-বাহন পোর্টালে মার্চের ১২-৩১ তারিখের মধ্যে বিক্রি ও নথিভুক্ত হওয়া BS-IV যুক্ত গাড়ির সংখ্যা যাচাই করতে নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। 

শুক্রবার বিচারপতি অরুণ মিশ্র, বিচারপতি বি আর গাভাই ও বিচারপতি কৃষ্ণ মুরারির বেঞ্চ জানায়, ‘লকডাউনে বিক্রির পরিমাণ অস্বাভাবিক বেশি। মনে হচ্ছে আমাদের দেওয়া গত ২৭ মার্চের নির্দেশের (লকডাউনের ক্ষতিপূরণের স্বার্থে ৩১ মার্চের পরে BS-IV গাড়ি বিক্রির অনুমোদন) সুযোগ নিয়ে কোনও প্রতারণামূলক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’

এই কারণে FADA-কে অনলাইনে বিক্রি হওয়া গাড়ির বিস্তারিত তালিকা দিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য হয়েছে আগামী ১৩ অগস্ট। 

শুক্রবারের শুনানিতে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল ঐশ্বর্য ভাটি আদালতকে জানান যে, FADA-র দেওয়া তথ্য অনুযায়ী উল্লিখিত সময়ের মধ্যে মোট ২,২৫,২৫৭টি BS-IV গাড়ি বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে ১,৪৫,১৫২টি গাড়িকে রেজিস্ট্রেশনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে এবং ২৯,৮৩৪টি গাড়ির এখনও রেজিস্ট্রেশন বাকি রয়েছে। আদালতের নির্দেশে আপাতত এই গাড়িগুলি রেজিস্ট্রি করা যাবে না।

বন্ধ করুন