বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মে'তে সপ্তাহে মাত্র ৪ দিন কাজ, করোনার জেরে ঘোষণা এই সংস্থার
মে'তে সপ্তাহে মাত্র ৪ দিন কাজ, করোনার জেরে ঘোষণা এই সংস্থার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)
মে'তে সপ্তাহে মাত্র ৪ দিন কাজ, করোনার জেরে ঘোষণা এই সংস্থার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)

মে'তে সপ্তাহে মাত্র ৪ দিন কাজ, করোনার জেরে ঘোষণা এই সংস্থার

  • করোনা পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত।

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় রীতিমতো বিপর্যস্ত দেশ। একাধিক রাজ্যে জারি হয়েছে বিধিনিষেধ। সেই পরিস্থিতিতে ফুড ডেলিভারি সংস্থা সুইগির তরফে জানানো হয়েছে, চলতি মাসে কর্মীদের সপ্তাহে চারদিন কাজের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।

মে'র পয়লা তারিখে সংস্থার একটি অভ্যন্তরীণ মেলে হিউম্যান রিসোর্স (এইচআর) প্রধান গিরিশ মেনন জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে সব কর্মীদের সপ্তাহে চারদিন কাজের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। কোন চারদিন কাজ করতে চান, তা কর্মীরাই নির্ধারণ করতে পারবেন। বাড়তি একদিন যে ছুটি মিলবে, তাতে কর্মীদের ছুটি নেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছে। সেইসঙ্গে পরিবারের দেখভাল করা, নিজেদের শরীরের যত্ন দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মেনন। তবে একইসঙ্গে জানানো হয়েছে, কোনও কর্মী যদি স্বেচ্ছায় বাড়তি ছুটির দিনে সুইগির কোভিড টাস্ক ফোর্সে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করতে চান, তবে সাহায্য করতে পারেন তিনি।

এমনিতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে ভারত। সেই পরিস্থিতিতে মানসিক পরিস্থিতিও যথেষ্ট কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। সেই সংকটের পরিস্থিতিতে কর্মীদের সাহায্য করার জরুরিকালীন বিশেষ দল গঠন করেছে সুইগি। সব কর্মী এবং তাঁদের পরিবারের সদস্যদের করোনাভাইরাস টিকা প্রদানেরও পরিকল্পনা করছে ফুড ডেলিভারি সংস্থা। কোনও কর্মী বা তাঁর পরিবারের যদি নিভৃতবাসে থাকেন, সেই ব্যবস্থাও করা হয়েছে। পাশাপাশি কর্মীরা যাতে হাসপাতালের শয্যা, প্লাজমা, অ্যাম্বুলেন্স, অক্সিজেন সিলিন্ডার-সহ অন্যান্য জরুরি সহায়তা চান, সেজন্য ইন-হাউস অ্যাপ এবং একটি হটলাইন নম্বর চালু করেছেন।

বন্ধ করুন