বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Taj Mahal: 'আমাদের ড্রয়িংরুমে আসুন...', তাজমহলের ২২টি বন্ধ ঘরের রহস্য নিয়ে বড় নির্দেশ এলাহাবাদ হাই কোর্টের
তাজমহল নিয়ে পুরনো বিতর্ক রয়েছে। এই আবহে তাজমহলের ঘর খোলার দাবি তুলে মামলা দায়ের করেছিলেন বিজেপি নেতা। (PTI)
তাজমহল নিয়ে পুরনো বিতর্ক রয়েছে। এই আবহে তাজমহলের ঘর খোলার দাবি তুলে মামলা দায়ের করেছিলেন বিজেপি নেতা। (PTI)

Taj Mahal: 'আমাদের ড্রয়িংরুমে আসুন...', তাজমহলের ২২টি বন্ধ ঘরের রহস্য নিয়ে বড় নির্দেশ এলাহাবাদ হাই কোর্টের

  • Taj Mahal Controversy: তাজমহল নিয়ে পুরনো বিতর্ক রয়েছে। এই আবহে তাজমহলের ঘর খোলার দাবি তুলে মামলা দায়ের করেছিলেন বিজেপি নেতা। তবে উচ্চ আদালতে সেই আবেদন খারিজ হয়ে গেল। 

তাজমহল বিতর্ক নিয়ে বড় নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। উল্লেখ্য, তাজমহলের ২২টি বন্ধ ঘর খোলার আবেদন জানিয়ে এলাহাবাদ হাই কোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন অযোধ্যা জেলায় ভারতীয় জনতা পার্টির মিডিয়া ইনচার্জ ডঃ রজনীশ সিং। বিজেপি নেতার সেই আবেদন খারিজ করে দিল এলাহাবাদা হাই কোর্ট। পাশাপাশি আবাদনকারীকে জনস্বার্থ মামলার নামে 'উপহাস' করতে বারণ করলেন এলাহাবাদ হাই কোর্টের বিচারপতি।

এই মামলাটির শুনানি হচ্ছিল এলাহাবাদ উচ্চ আদালতের লখনউ বেঞ্চের বিচারপতি ডি কে উপাধ্যায় এবং বিচারপতি সুভাষ বিদ্যার্থীর এজলাসে। বেঞ্চের তরফে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেওয়া হয়, এই মামলার আবেদনে সায় দিয়ে আদালত বন্ধ ঘরের দরজা খোলার নির্দেশ দেবে না। আদালতের তরফে বলা হয়, 'কালকে আপনি এসে আমাদের মাননীয় বিচারপতিদের চেম্বারে যাওয়ার কথা বলবেন? দয়া করে, পিআইএল ব্যবস্থাকে উপহাস করবেন না। আমি আপনাকে স্বাগত জানাই, আপনি আমাদের সাথে ড্রয়িংরুমে আসুন, সেখানে এই সমস্যা নিয়ে বিতর্ক করবেন, আদালতে নয়।'

আরও পড়ুন: শ্রীকৃষ্ণের আবেদনের কী হবে? মথুরা বিতর্কে নয়া নির্দেশ এলাহাবাদ হাই কোর্টের

এর আগে নিজের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিজেপি নেতা রজনীশ সিং দাবি করেছিলেন, ‘তাজমহল নিয়ে পুরনো বিতর্ক রয়েছে। তাজমহলের প্রায় ২০টি কক্ষ তালাবদ্ধ এবং কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না। ধারণা করা হয়, এসব ঘরে হিন্দু দেবতা ও ধর্ম সম্পর্কিত মূর্তি রয়েছে। এর প্রেক্ষিতে আমি হাই কোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করেছি যাতে আর্কেওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়াকে এই কক্ষগুলি খোলার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়। এই কক্ষগুলি খোলা হলে এই সংক্রান্ত যাবতীয় বিতর্ক থেমে যাবে আর তা করতে তো কোনও ক্ষতি নেই।’

এর আগেও তাজমহলে যাতে হিন্দুদের গিয়ে পূজা-পাঠের অনুমতি দেওয়ার দাবি জানিয়ে আদালতে মামলা করা হয়েছিল। দাবি করা হয়, মুঘল জমানার এই বিশ্ববিখ্যাত সৌধ আদতে ‘তেজো মহালায়া’ নামক শিব মন্দির ছিল। এই বিতর্ক সাম্প্রতিককালে ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। শ্রী অগ্রেশ্বর মহাদেব নাগনাথেশ্বর বিরাজমানের হয়ে মামলা অবশ্য আদালতে টেকেনি। এবারও বিজেপি নেতার আবেদন খারিজ করল উচ্চ আদালত।

বন্ধ করুন