বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পেট্রল-ডিজেলের দাম কমাতে রাশিয়া-সৌদির সঙ্গে কথা পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ পুরীর
পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ পুরী (পিটিআই) (HT_PRINT)
পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ পুরী (পিটিআই) (HT_PRINT)

পেট্রল-ডিজেলের দাম কমাতে রাশিয়া-সৌদির সঙ্গে কথা পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ পুরীর

  • গত কয়েক দিন ধরেই গোটা দেশে বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম। এই আবহে রাজনৈতিক ভাবে চাপে রয়েছে বিজেপি।

জ্বালানির দাম বৃদ্ধি নিয়ে দেশব্যাপী সঙ্কটাপন্ন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই আবহে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী আজ জানান যে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির সমস্যা মেটাতে উপসাগরীয় দেশ, সৌদি আরব এবং রাশিয়ার সঙ্গে কথা বলেছেন। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় পুরী বলেন, 'আমি সৌদি আরব, উপসাগরীয় দেশ এবং রাশিয়ার জ্বালানি মন্ত্রীদের সাথে কথা বলছি... আমরা বিভিন্ন স্তরে কাজ করছি।'

প্রসঙ্গত, গত কয়েক দিন ধরেই গোটা দেশে বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম। এই আবহে রাজনৈতিক ভাবে চাপে রয়েছে বিজেপি। পেট্রল, ডিজেলের লাগামছাড়া দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাস্তায় নামতে চলেছে কংগ্রেস। ১৪ থেকে ২৯ নভেম্বর এই ইস্যুতে রাস্তায় নামবে কংগ্রেস। তাতে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা-নেত্রীরা অংশগ্রহণ করবেন।

এর আগে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা। কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম এবং প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী রামেশ্বর তেলি আবার সাফ জানিয়ে দেন, বিনামূল্যে করোনার টিকা দিচ্ছে সরকার। সেক্ষেত্রে পেট্রলের দাম তো বাড়বেই। উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী উপেন্দ্র তিওয়ারি আবার দাবি করেন, দেশের ৯৫ শতাংশ মানুষ পেট্রল ব্যবহারই করেন না। তাই এই বিষয়ে মাথা ঘামানোর কারণ খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি।

উল্লেখ্য, জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্যগুলির মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। রাজ্যগুলি নিজেদের লাভের অংশ ছাড়লেই, মানুষ স্বস্তি পাবেন বলে দাবি কেন্দ্রের। অন্যদিকে বিভিন্ন রাজ্যের সরকারের দাবি, জ্বালানি থেকে কেন্দ্রের আয় সবথেকে বেশি। মানুষকে রেহাই দিতে, তাদেরই পদক্ষেপ করতে হবে ৷ তবে এই টানাপড়েনের মধ্যে সাধারণ মানুষের হাত পুড়ছে।

বন্ধ করুন