বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাজার থেকে নিজেদের সংস্থারই ১৮ হাজার কোটির শেয়ার কিনে ঘরে তুলতে চলেছে TCS!
টিসিএস, প্রতীকী ছবি (MINT_PRINT)
টিসিএস, প্রতীকী ছবি (MINT_PRINT)

বাজার থেকে নিজেদের সংস্থারই ১৮ হাজার কোটির শেয়ার কিনে ঘরে তুলতে চলেছে TCS!

  • এর আগে টাটা সনস ১০ হাজার কোটির শেয়ার বাজার থেকে ‘বাই ব্যাক’ করে সম্প্রতি।

শেয়ার বাজার থেকে নিজেদেরই শেয়ার কিনতে চলেছে টাটা কনসাল্টেন্সি সার্ভিসেস। শেয়ার বাজার থেকে মোট ১৮ হাজার কোটি টাকা মূল্যের শেয়ার কিনতে চলেছে টিসিএস। ভারতের সর্ববৃহত আইটি সংস্থা হত পাঁচ বছরে এত বিশাল পরিমাণের ‘বাই ব্যাক’ (নিজের সংস্থার শেয়ার কেনা) করেনি। টিসিএস-এর এই বাই ব্যাক প্রক্রিয়ায় প্রতি শেয়ারের মূল্য হতে চলেছে ৪৫০০ টাকা।

এর আগে টাটা সনস গোষ্ঠী ১০ হাজার কোটির শেয়ার বাজার থেকে ‘বাই ব্যাক’ করে। শেয়ার প্রতি ৩০০০ টাকা খরচ করতে হয়েছিল টাটা সনস গোষ্ঠীকে। আর ২০১৮ এবং ২০১৭ সালে এই একই ধরনের বাই ব্যাক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাজার থেকে নিজেদের শেয়ার কিনে ঘরে তুলেছিল টাটা কন্সাল্টেন্সি সার্ভিসেস।

উল্লেখ্য, বাই ব্যাক প্রক্রিয়ায় একটি সংস্থা নিজেদের শেয়ার হোল্ডার এবং বিনিয়োগকারীদের থেকে শেয়ার কেনে। বাজার দরের থেকে বেশি টাকা খরচ করে এই শেয়ার কেনা হয়। এদিকে এর জেরে বাজারে সেই সংস্থার মোট শেয়ারের সংখ্যা কমে যায়। অন্যভাবে বলতে গেলে, সংস্থা বিনিয়োগকারীদের উপর নির্ভরতা কমিয়ে স্বনির্ভরতা বাড়ায়।

আইটি সেক্টরে টিসিএস-এর আগে ইনফোসিস, এইচসিএল, উইপ্রোও শেয়ার বাজার থেকে নিজেদের শেয়ার বাই ব্যাক করেছিল। ২০১৯ সালের অগস্টে ইনফোসিস ৮,২০৬ কোটি টাকা মূল্যের শেয়ার বাই ব্যাক করে। ২০২১ সালে ৯,২০০ টাকা মূল্যের শেয়ার বাই ব্যাক করে ইনফোসিস। এর আগে ২০১৭ সালের সেপ্টম্বরে ১৩ হাজার কোটি টাকার শেয়ার বাজার থেকে কিনে ঘরে তুলেছিল ইনফোসিস। তাছাড়া ২০২১ সালের জানুয়ারিতে ৯,৫০০ কোটি টাকার শেয়ার বাই ব্যাক করে উইপ্রো। ২০১৮ সালে এইচসিএল ৪ হাজার কোটির শেয়ার বাই ব্যাক করেছিল।

বন্ধ করুন