মানুষের ফুসফুসের কৃত্রিম কোষে পালন করা SARS-CoV-2 জীবাণুর আণবিক ও প্যাথলজিক্যাল বৈশিষ্ট বিশ্লেষণের চেষ্টা করবেন গবেষকরা। ছবি: ব্লুমবার্গ। (Bloomberg)
মানুষের ফুসফুসের কৃত্রিম কোষে পালন করা SARS-CoV-2 জীবাণুর আণবিক ও প্যাথলজিক্যাল বৈশিষ্ট বিশ্লেষণের চেষ্টা করবেন গবেষকরা। ছবি: ব্লুমবার্গ। (Bloomberg)

করোনা পরীক্ষায় ‘ফেলুদা’র লাইসেন্স জোগাড়ের দৌড়ে শামিল টাটা সন্স

  • মানুষের দেহকোষে এবার করোনাভাইরাস পালনের প্রচেষ্টা শুরু করতে চলেছে হায়দরাবাদের CCMB।

Covid-19 দমনে সম্ভাব্য টিকা ও ওষুধ পরীক্ষার জন্য মানুষের দেহকোষে এবার করোনাভাইরাস পালনের প্রচেষ্টা শুরু করতে চলেছে হায়দরাবাদের সেন্টার ফর সেলুলার অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজি (CCMB)। বিশেষজ্ঞদের দাবি, এর ফলে মানুষের শরীরে প্রয়োগের আগে কৃত্রিম উপায়ে ওই সমস্ত প্রতিষেধক পরীক্ষায় সুবিধা পাওয়া যাবে।

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রক প্রকাশিত বিবৃতিতে জানা গিয়েছে, এই প্রকল্পে CCMB-র সঙ্গে সহযোগিতা করবে সেল থেরাপি সংস্থা আইস্টেম রিসার্চ প্রাইভেট লিমিটেড। বিবৃতি অনুযায়ী, গবেষকরা আইস্টেম-এর তৈরি মানুষের ফুসফুসের কৃত্রিম কোষে পালন করা SARS-CoV-2 জীবাণুর আণবিক ও প্যাথলজিক্যাল বৈশিষ্ট বিশ্লেষণের চেষ্টা করবেন।

এইমস-এর ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান শোভা ব্রুর জানিয়েছেন, নিয়ম অনুযায়ী মানুষের শরীরে প্রয়োগ করার আগে যে কোনও নতুন প্রতিষেধক কৃত্রিম উপায়ে পরীক্ষা করা হয় এবং তার পরে পশুর শরীরে পরীক্ষা করা হয়। কত্রিম পরীক্ষার জন্য মানবশরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ থেকে তৈরি কৃত্রিম দেহকোষের প্রয়োজন পড়ে। ফুসফুস থেকে তৈরি কৃত্রিম দেহকোষে Covid 19 প্রতিষেধক পরীক্ষার সুবিধা পাওয়া গেলে গবেষণায় গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হবে। 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, করোনা পরীক্ষায় সাম্প্রতিক আবিষ্কৃত ফেলুদা পেপার স্ট্রিপ প্রক্রিয়ার লাইসেন্স পেতে সম্প্রতি টাটা সন্স-এর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে ইনস্টিটিউট অফ জেনোমিক্স অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটিভ বায়োলজি। 

বন্ধ করুন