বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Tax on Cow Burp: গরু ও ভেড়ার ঢেকুরের উপর কর বসানো হতে পারে, ভাবনাচিন্তা করছে এই দেশ: রিপোর্ট
গরু ও ভেড়ার ঢেকুরের উপর কর বসানো হতে পারে, ভাবনাচিন্তা করছে এই দেশ: রিপোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে রয়টার্স)

Tax on Cow Burp: গরু ও ভেড়ার ঢেকুরের উপর কর বসানো হতে পারে, ভাবনাচিন্তা করছে এই দেশ: রিপোর্ট

  • Tax on Cow Burp: যদি গরু এবং ভেড়ার ঢেকুরের উপর কর চাপানো হয়, তাহলে বিশ্বের প্রথম দেশ সেই কাজটা করবে নিউজিল্যান্ড। যে দেশে গবাদি পশুর সংখ্যা কোটির উপরে। প্রস্তাব অনুযায়ী, গ্রিন হাউস নিঃসরণের জন্য ২০২৫ সাল থেকে পশুপালকদের থেকে কর সংগ্রহ করা হবে।

Tax on Cow Burp: গরু ও ভেড়ার ঢেকুরের উপর কর বসানোর পরিকল্পনা করছে নিউজিল্যান্ড। এমনটাই জানালো হয়েছে বিবিসির প্রতিবেদনে। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, গ্রিন হাউস গ্যাসে রাশ টানতে সেই সিদ্ধান্ত নিতে পারে নিউজিল্যান্ড।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কয়েক বছরের মধ্যেই গবাদি পশুদের মিথেন নিঃসরণের জন্য মালিকদের থেকে কর আদায়ের পথে হাঁটতে পারে কেন উইলিয়ামসনদের দেশ। যদি গরু এবং ভেড়ার ঢেকুরের উপর কর চাপানো হয়, তাহলে বিশ্বের প্রথম দেশ সেই কাজটা করবে নিউজিল্যান্ড। যে দেশের জনসংখ্যা মাত্র ৫০ লাখ। দেশে অসংখ্য গবাদি পশু আছে। সংখ্যাটা কোটির উপরে। 

আরও পড়ুন: ‘ঠোঁটে কি পিঁপড়ে কামড়াল’, অন্তর্বাস পরে আজব মুখোভঙ্গি উরফির! দেখুন ভাইরাল ছবি

এমনিতে কৃষিক্ষেত্র থেকেই গ্রিনহাউস গ্যাসের বেশিরভাগটা নিঃসৃত হয়। তাতে আবার বেশিরভাগটাই মিথেন নিঃসৃত হয় বলে বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়ছে। প্রাথমিকভাবে অবশ্য কৃষিক্ষেত্র থেকে গ্রিন হাউস নিঃসরণের বিষয়টি নিয়ে তেমন কোনও পদক্ষেপ করেনি নিউজিল্যান্ড। সেজন্য তুমুল সমালোচনার মুখেও পড়েছিল সরকার। একাংশের তরফে দাবি করা হচ্ছিল, গ্লোবাল ওয়ার্মিং রুখতে পর্যাপ্ত পদক্ষেপ করছে না নিউজিল্যান্ড সরকার। 

বিষয়টি নিয়ে নিউজিল্যান্ডের জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত মন্ত্রী জেমস শ'কে উদ্ধৃত করে বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নিউজিল্যান্ডে যে পরিমাণ মিথেন নিঃসৃত হত, তা নিঃসন্দেহে কমিয়ে ফেলা হয়েছে। কৃষিক্ষেত্রেও একইরকম পদক্ষেপ করা হচ্ছে। সেই প্রস্তাব অনুযায়ী, গ্রিন হাউস নিঃসরণের জন্য ২০২৫ সাল থেকে পশুপালকদের থেকে কর সংগ্রহ করা হবে।

বন্ধ করুন