বাড়ি > ঘরে বাইরে > মমতার চেয়ে শহিদ পরিবারকে অনেক বেশি অর্থ সাহায্য করবেন রাও
শহিদ ভারতীয় সেনাবাহিনীর ১৯ সদস্যের প্রতিটি পরিবারকে ১০ লাখ টাকা সাহায্য ঘোষণা করেছেন কেসিআর।
শহিদ ভারতীয় সেনাবাহিনীর ১৯ সদস্যের প্রতিটি পরিবারকে ১০ লাখ টাকা সাহায্য ঘোষণা করেছেন কেসিআর।

মমতার চেয়ে শহিদ পরিবারকে অনেক বেশি অর্থ সাহায্য করবেন রাও

  • ভারত-চিন সংঘর্ষে শহিদ কর্নেল সন্তোষ বাবুর পরিবারকে পাঁচ কোটি টাকা এককালীন অর্থসাহায্য ঘোষণা করলেন তেলাঙ্গনার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও।

গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চিন সংঘর্ষে শহিদ কর্নেল সন্তোষ বাবুর পরিবারকে পাঁচ কোটি টাকা এককালীন অর্থসাহায্য ঘোষণা করলেন তেলাঙ্গনার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। সেই সঙ্গে ওই সংঘর্ষে শহিদ ভারতীয় সেনাবাহিনীর আরও ১৯ সদস্যের প্রতিটি পরিবারকে  ১০ লাখ টাকা সাহায্য ঘোষণা করেছেন কেসিআর।

শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকে এই ঘোষণা করেন তেলাঙ্গনার মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, শহিদ কর্লেন সন্তোষ বাবুর মহান ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এই উদ্যোগ নিয়েছে তাঁর সরকার। পাশাপাশি, শহিদের পরিবারের সঙ্গে দ্রুত সাক্ষাৎ করে চেক এবং কর্নেলপত্নী সন্তোষীকে রাজ্য সরকারের দফতরে গ্রুপ ওয়ান কর্মসংস্থানের প্রস্তাবও দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রাও। 

সেনাবাহিনীর ১৯ নিহত সদস্যের পরিবারের হাতেও কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মাধ্যমে অর্থসাহায্য দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন রাও। তিনি জানিয়েছেন, ভবিষ্যতেও কর্নেলল সন্তোষ বাবুর পরিবারকে যে কোনও বিষয়ে সাহায্য করবে তেলাঙ্গনা সরকার। দেশবাসীর প্রতি শহিদ পরিবারগুলিকে সাহায্য করার আহ্বানও জানিয়েছেন রাও। 

রাও জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের পাশাপাশি রাজ্য সরকারগুলিরও উচিত শহিদ পরিবারগুলিকে সাদ্য মতো সাহায্য করা। করোনা সংক্রমণের মাঝেও খরচ কমিয়ে রাজ্য কোষাগার থেকে অর্থসাহায্যের জন্য তিনি অন্যান্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। 

একই সঙ্গে রাওয়ের পরামর্শ, চিনের সঙ্গে সংঘর্ষে যাওয়ার ব্যাপারে যেন তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত না নেয় ভারত। তবে সেই সঙ্গে জাতীয় স্বার্থ সুরক্ষিত রাখার কথাও তিনি বলেন। যদিও চিন থেকে পণ্য আমদানির বিরুদ্ধে আন্দোলনকে তিনি সমর্থন করেননি। তাঁর দাবি, ‘আগে আমরা চিন থেকে আমদানি করা পণ্য বানাতে সফল হই, তার পরে চিনের পণ্য নিষিদ্ধ করা যাবে।’

 

বন্ধ করুন