বাড়ি > ঘরে বাইরে > কয়লাখনির আচমকা বিস্ফোরণে তেলাঙ্গনায় নিহত ৪ ঠিকাশ্রমিক, আহত ৩
পেড্ডাপল্লির কয়লাখনিতে জোরালো বিস্ফোরণে নিহত চার ঠিকাশ্রমিক, আহত আরও তিন জন।
পেড্ডাপল্লির কয়লাখনিতে জোরালো বিস্ফোরণে নিহত চার ঠিকাশ্রমিক, আহত আরও তিন জন।

কয়লাখনির আচমকা বিস্ফোরণে তেলাঙ্গনায় নিহত ৪ ঠিকাশ্রমিক, আহত ৩

  • খনির ভিতরে পাথুরে দেওয়াল ফাটানোর জন্য মজুত বিস্ফোরক থেকেই আচমকা তীব্র বিস্ফোরণ ঘটে।

তেলাঙ্গনায় কয়লাখনিতে জোরালো বিস্ফোরণে নিহত চার ঠিকাশ্রমিক। মঙ্গলবার সকালের দুর্ঘটনায় আহত আরও তিন জন। নিহতদের সকলেই তিরিশ বছরের কাছাকাছি বয়েসি।

এ দিন সকালে তেলাঙ্গনার পেড্ডাপল্লি জেলায় সরকার নিয়ন্ত্রণাধীন সিংগারেনি কোলিয়ারিস কোম্পানি লিমিটেড-এর ওই খনিতে বিস্ফোরণে মারা গিয়েছেন কামনপুর গ্রামের বাসিন্দা রাজেশ ও আরজাইয়া, এবং গোদাবরীখনি গ্রামের অধিবাসী রাকেশ ও প্রবীণ। তাঁর সকলেই ঠিকাশ্রমিক হিসেবে ওই খনিতে কর্মরত ছিলেন। চারটি দেহ পরে গোদাবরীখনির সিংগারেনি আঞ্চলিক হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

রামাগুন্ডার পুলিশ কমিশনার ভি সত্যনারায়ণ সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন, খনি বিস্ফোরণে আহত কামনপুরের বাসিন্দা ভেঙ্কটেশ, রত্নাপুরের বাসিন্দা ভীমাইয়া এবং জালাপল্লির বাসিন্দা শংকরকে ওই হাসপাতালেই চিকিৎসার জন্য ভরতি করা হয়েছে।

বিস্ফোরণের কারণ এখনও জানা না গেলেও প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের জানতে পেরেছে যে, খনির ভিতরে পাথুরে দেওয়াল ফাটানোর জন্য মজুত বিস্ফোরক থেকেই আচমকা তীব্র বিস্ফোরণ ঘটেছে। রামাগুন্ডাম থানার এক আধিকারিক জানিয়েছেন, কয়লা বের করতে পাথরের দেওয়ালে গর্ত করে ডিটোনেটরের সাহায্যে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এ ক্ষেত্রে ডিটোনেটর বসানোর সময় দুর্ঘটনা ঘটেছে।

আহতদের দেখতে হাসপাতালে পৌঁছন পেড্ডাপল্লির সাংসদ ভেঙ্কটেশ নেথা, রামাগুন্ডামের বিধায়ক কোরুকান্তি চন্দর, আইএনটিইউসি-র সাধারণ সম্পাদক জনক প্রসাদ এবং বিজেপি-র রামাগুন্ডাম জেলার সভাপতি সোমারাপু সত্যনারায়ণ। দুর্ঘটনায় হতানিহতদের পরিবারপিছু এককালীন ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছোে আইএটিইউসি। 

বন্ধ করুন