ফাইল ছবি  (REUTERS)
ফাইল ছবি (REUTERS)

করোনাভাইরাসে মৃত ২৫ হাজার, দাবি চিনা বহুজাতিক সংস্থার

সরকারি হিসাবে মৃত ছশোর কোঠায়। কিন্তু চিনা সংস্থা টেনসন্টের দাবি, মারা গিয়েছে ২৫ হাজার করোনাভাইরাসে। এই নিয়েই ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য।

অনেক দিন ধরেই কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল যে করোনাভাইরাসে আসল মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেশি। চিনের সরকার আসল মৃত্যু সংখ্যা চেপে যাচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন দাবি উঠেছে। এবার টেনসেন্ট নামের বৃহত্ বহুজাতিক সংস্থা জানিয়েছে যে করোনাভাইরাসে নিহতের সংখ্যা ২৫০০০, যা নিয়ে ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য।

টেনসেন্ট নিজেদের ওয়েবপেজে একটি Epidemic Situation Tracker চালাচ্ছে। সেখানে সংস্থার দাবি, ভাইরাসে আক্রান্ত ১৫৪,২০৩ জন, যা সরকারি তথ্যের থেকে প্রায় দশগুণ বেশি। করোনা ভাইরাস হয়েছে, এমন সন্দিগ্ধ লোকের সংখ্যা ৭৯,৮০৮। তবে সব থেকে যেটি চিন্তার, সংস্থার দাবি ছিল ২৪,৫৮৯ জন মারা গিয়েছেন করোনাভাইরাসে।

এটা নিয়ে হইচই শুরু হওয়ার পরে সরকারি তথ্য নিজেদের ট্র্যাকারে ইনপুট করে টেনসেন্ট বলে জানা যাচ্ছে। এবার অনেকে মতে, হয়তো কোনও ইন্টারনেট বাগের ফলে ওই সংখ্যাগুলি আসছিল। আবার অনেকের মতে, কোনও হুইশলব্লোয়ার হয়তো আসল সংখ্যাটি ফাঁস করতে চাইছে। বিভিন্ন প্রচারমাধ্যমে আসা এই তথ্য নিয়ে সরকারি ভাবে কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি টেনসেন্ট।

কিছু রিপোর্ট দাবি করা হয়েছে, উহানে হাসপাতালগুলির বাইরে সঠিক চিকিত্সা না পেয়ে মারা যাচ্ছেন অনেকে। মৃতের সংখ্যা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য অনেক মৃতদেহ পুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে, এই দাবিও উঠেছে। মৃতের সংখ্যায় গণ্ডগোল আছে দাবি ওয়ার্ল্ড স্ট্রিট জার্নালের।

কেইজিং বলে চিন থেকে প্রকাশিত এক ম্যাগাজিনের দাবি যে সরকার অনেক মৃত্যুর কথা চেপে যাচ্ছে। শুক্রবার অবধি মৃতের সংখ্যা ৬৩৮ বলে জানিয়েছে চিন।








বন্ধ করুন