বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পতাকা উত্তোলনের পরেই ‘উসকানিমূলক স্লোগান,’ সংঘর্ষ দুপক্ষের, পাথর বৃষ্টি
গোটা দেশ জুড়েই অত্যন্ত মর্যাদার সঙ্গে পালিত হয়েছে স্বাধীনতা দিবস (ফাইল ছবি)
গোটা দেশ জুড়েই অত্যন্ত মর্যাদার সঙ্গে পালিত হয়েছে স্বাধীনতা দিবস (ফাইল ছবি)

পতাকা উত্তোলনের পরেই ‘উসকানিমূলক স্লোগান,’ সংঘর্ষ দুপক্ষের, পাথর বৃষ্টি

  • দুটি গাড়িতে ও একটি দোকানেও ভাঙচুর চালানো হয়। এরপর বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পরই মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে জখম হয়েছেন ২জন। স্থানীয় সূত্রে খবর ভারত বিরোধী স্লোগান ও পালটা স্লোগান দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করেই বিবাদের সূত্রপাত। এলাকায় একটি বিশেষ ধর্মীয় গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়া হচ্ছিল বলেও অভিযোগ। এরপরই এলাকায় উত্তেজনার পারদ চড়তে থাকে। ইন্দোরের পুলিশ সুপার আশুতোষ বাগরি জানিয়েছেন, দাঙ্গার মতো পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা করা, অপরাধমূলক কাজকর্ম সহ নানা কারণে অন্তত ৩০জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, একটি দক্ষিণপন্থী সংগঠন এলাকার একটি আবাসনের সামনে স্বাধীনতা দিবসে পতাকা উত্তোলনের কর্মসূচি নিয়েছিল। প্রসঙ্গত অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া বাসিন্দাদের জন্য এই আবাসন তৈরি হয়েছে। এদিকে পতাকা তোলার পরেই একটি বিশেষ ধর্মের বিরোধী স্লোগান দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এর জেরে সেই ধর্মীয় সম্প্রদায়ের কিছু মানুষ এতে আপত্তি তোলেন। তাঁরা পালটা জাতীয়তাবাদ বিরোধী স্লোগান দেন বলেও অভিযোগ। এনিয়েই দুপক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ বেঁধে যায়। তারা একে অপরকে লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে । দুটি গাড়িতে ও একটি দোকানেও ভাঙচুর চালানো হয়। এরপর বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। জখমদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

 

এদিকে গোটা ঘটনায় এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়ায়। ঘটনার পরেই বজরং দলের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তারা এলাকায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। জেলা পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, ঘটনার ভিডিওগুলি দেখা হচ্ছে। কী ধরনের স্লোগান দেওয়া হচ্ছিল সেটাও দেখা হচ্ছে। এলাকায় শান্তি বজায় রাখার জন্য বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। 

বন্ধ করুন