বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কাবুল বিমানবন্দরে আত্মঘাতী হামলা চালানো জঙ্গি দিল্লির জেলে বন্দি ছিল: ISIS-K
আইএস-খোরাসানের প্রকাশিত ছবি
আইএস-খোরাসানের প্রকাশিত ছবি

কাবুল বিমানবন্দরে আত্মঘাতী হামলা চালানো জঙ্গি দিল্লির জেলে বন্দি ছিল: ISIS-K

  • কাবুল বিমানবন্দরে আত্মঘাতী হামলার নেপথ্যে থাকা জঙ্গি নাকি পাঁচ বছর আগে দিল্লিতে কারাবন্দি ছিল।

কাবুল বিমানবন্দরের আত্মঘাতী হামলায় প্রাণ হারিয়েছিলেন প্রায় ২০০ জন। সেই আত্মঘাতী হামলার নেপথ্যে থাকা জঙ্গি নাকি পাঁচ বছর আগে দিল্লিতে কারাবন্দি ছিল। পরবর্তীতে ভারত সরকারই নাকি সেই জঙ্গিকে আফগানিস্তানে 'ডিপোর্ট' করে দিয়েছিল। এমনই দাবি করা হয়েছে ইসলামিক স্টেট-খোরাসানের সাম্প্রতিকতম বার্তায়। ম্যাগাজিন প্রকাশের মাধ্যমে নিজেদের এই বার্তা ছড়িয়ে দিতে চাইছে আইএস-কে।

২৬ অগস্টের হামলার জন্য আবদুর রহমান আল-লোগরি নামক এক জঙ্গি দায়ী বলে দাবি করেছে আএস-কে। কাশ্মীরের জন্য প্রতিষোধ নিতে দিল্লিতে গিয়ে ধরা পড়েছিল রহমান। সেখানেই জেলবন্দি ছিল সে। তারপর রহমানকে আফগানিস্তানে পাঠিয়ে দেয় ভারত সরকার।

আইএস-কে নিয়মিত নিজেদের বার্তা প্রচারের স্বার্থে ম্যাগাজিন প্রকাশ করে। এর আগে দিল্লি দাঙ্গার সময়ও একটি সংস্করণ প্রকাশিত হয়েছিল এই ম্যাগাজিনের। আইএস-কে-এর প্রকাশিত ম্যাগাজিনের সঙ্গে যোগ থাকা সন্দেহে দিল্লি পুলিশ এক কাশ্মীরি দম্পতিকে গ্রেফতার করেছিল। ধৃতদের নাম জাহানজাইব শামি (৩৬) ও তার স্ত্রী হিন্দা বশির বেগ (৩৯)। এরপর আরও তিন ব্যক্তিকে আইএস-কে-এর সঙ্গে যুক্ত থাকার সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছিল। পরে এই সংক্রান্ত তদন্তের দায়ভার এনআইএ নিয়ে নেয়।

তদন্তকারীদের দাবি, অনলাইনে নিজেদের কট্টরপন্থার বীজ বপণ করে ভারতে নিজেদের জাল বিস্তার করতে চাইছে ইসলামিক স্টেট। ফেসবুক, টুইটার, টেলিগ্রামের মতো প্ল্যাটফর্মে যুব সম্প্রদায়ের মগজধোলাই করে ভারতীয়দের সংগঠনে নিতে চাইছে আইএস। এদিকে আফগানিস্তানের পতনের পর আইএস-এর জাল আরও গভীর ভাবে ভারতে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা তদন্তকারীদের।

কয়েকদিন আগেই জানা যায়, আফগানিস্তানে আইএস-খোরাসান জঙ্গি সংগঠনের সদস্য হিসেবে নাম লিছিয়েছে কেরলের অন্তত ১৪ জন বাসিন্দা। এই জঙ্গিরা বিগত দিনে বাগরাম জেলে বন্দি ছিল। পরবর্তীতে তালিবান বাগরামের দখল নিলে সেই কারাগার থেকে যখন সব জঙ্গিদের ছেড়ে দিয়েছিল, তখনই মুক্তি পেয়েছিল এই ১৪ জন।

বন্ধ করুন