বাড়ি > ঘরে বাইরে > কাশ্মীরি পণ্ডিত সরপঞ্চকে অনন্তনাগে খুন করল সন্ত্রাসবাদীরা
অজয় পণ্ডিত
অজয় পণ্ডিত

কাশ্মীরি পণ্ডিত সরপঞ্চকে অনন্তনাগে খুন করল সন্ত্রাসবাদীরা

হত্যার দায় স্বীকার করেছে লস্করের শাখা সংগঠন দ্য রেসিসটেন্স ফোর্স। 

দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে সোমবার নৃশংস ভাবে খুন করা হল এক কাশ্মীরি পণ্ডিতকে। তিনি ছিলেন লারকিপোরার লুকবাওয়ান গ্রামের সরপঞ্চ। ৪০ বছর বয়সী অজয় ভারতীকে তাঁর বাগানে আক্রমণ করে সন্ত্রাসবাদীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় অজয়কে। সেখানেই মৃত্যুর কোলে লুটিয়ে পড়েন তিনি। 

পুলিশ জানিয়েছে তিনি কংগ্রেসের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে শোক জ্ঞাপন করেছেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। শোকপ্রকাশ করেছেন ওমর আবদুল্লাও। জানা গিয়েছে যে ১৯৯০ সালে এই কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবার চলে গিয়েছিলেন উপত্যকা থেকে। দুই বছর আগে ফের নিজের ভিটেতে ফেরেন তিনি। পঞ্চায়েত ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। জিতেও যান। কিন্তু বেশিদিন স্থায়ী হল না তাঁর ঘরেফেরা। সন্ত্রাসের করাল ছায়ায় ঝড়ে গেল এক তাজা প্রাণ। 

আইএনএস সংবাদসংস্থা জানিয়েছে লস্করের এক শাখা সংগঠন দ্য রেসিসটেন্স ফোর্স এই হত্যার দায়স্বীকার করেছে। ভারতীয় সরকারের অনুগত ছিল অজয়, এই কারণে তাঁকে হত্যা করা হল বলে জানিয়েছে ফোর্স। এরকম আরও যারা আছেন, তাদেরও ছাড়া হবে না, বলে হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসবাদী সংগঠন। 

এই হত্যাকে উপত্যকায় তৃণমূল স্তরে গণতন্ত্রকে হারানোর একটা মরিয়া চেষ্টা বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং, যিনি জম্মুর সাংসদ। 

অজয়ের খুনিকে ধরার জন্য পুলিশ ও সেনা আলাদা আলাদা দল নামিয়েছে।জম্মু-কাশ্মীরের কংগ্রেস সভাপতি জানিয়েছেন যে অজয়ের কাছে কোনও নিরাপত্তারক্ষী ছিল না। এই ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি করেছেন তিনি। জীবনের ঝুঁকি আছে আশংকা করে সরকারের কাছে নিরাপত্তারক্ষীর জন্য লিখেছিল অজয়, কোনও উত্তর আসেনি বলেই কংগ্রেসের তরফ থেকে দাবি করা হচ্ছে। 

 

 

বন্ধ করুন