বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টেক্সাসে ইহুদি উপাসনালয়ে বিস্ফোরণ,জঙ্গির হাতে বন্দি সবাই মুক্তি পেলেন ১০ঘণ্টা পর
জঙ্গির হাতে বন্দি সবাই মুক্তি পেলেন ১০ঘণ্টা পর (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)

টেক্সাসে ইহুদি উপাসনালয়ে বিস্ফোরণ,জঙ্গির হাতে বন্দি সবাই মুক্তি পেলেন ১০ঘণ্টা পর

  • সাংবাদিকরা দাবি করেছেন যে ঘটনাস্থলে বিস্ফোরণের আওয়াজ শুনতে পেয়েছেন তাঁরা।

আমেরিকার টেক্সাসে ইহুদি উপাসনালয়ে ১০ ঘণ্টা ধরে বেশ কয়েকজনকে বন্দি রেখেছিল এক জঙ্গি। শেষ পর্যন্ত সেই বন্দিদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট। গ্রেগ জানান, সব বন্দিদেরই অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এদিকে ঘটনাস্থলে থাকা বহু সাংবাদিকরা দাবি করেছেন যে সেখানে বিস্ফোরণের বিকট আওয়াজ শুনতে পেয়েছেন তাঁরা। তবে জঙ্গিকে ধরা সম্ভব হয়েছে কিনা, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

জানান যায়, টেক্সাসের কলিভিলে ইহুদিদের উপাসনালয়ে গিয়ে চার ইহুদিকে বন্দি করে এক সশস্ত্র জঙ্গি। জঙ্গির দাবি ছিল, মার্কিন জেলে বন্দি থাকা এক পাকিস্তানি স্নায়ুবিজ্ঞানীর মুক্তি দিতে হবে। উল্লেখ্য, যে পাক বিজ্ঞানীর দাবি জঙ্গিটি পেশ করেছে, তিনি আফগানিস্তানে এক মার্কিন সেনাকে খুনের চেষ্টা করার দায়ে ধৃত। ঘটনায় জঙ্গির সঙ্গে কথা বলে বাকি বন্দিদের ছাড়ানোর চেষ্টা করছিলেন এফবিআই-এর আধিকারিকরা। ঘটনার দিকে নজর রেখে চলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের, ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট।

জঙ্গির মূল দাবি, আফিয়া সিদ্দিকির মুক্তি। আফিয়া একজন পাকিস্তানি নিউরোসায়েন্টিস্ট। আল-কায়দার সঙ্গে আফিয়ার যোগ রয়েছে বলে সন্দেহ করা হত। আফগানিস্তানে মার্কিন সামরিক আধিকারিকদের হত্যার চেষ্টার দায়ে আফিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছিল আফিয়াকে। ২০১০ সালে আফিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে সে টেক্সাসের ফেডারেল কারাগারে আছে। আফিয়ার সঙ্গে কথাও বলতে চায় সেই জঙ্গি। তবে ইহুদিদের বন্দি বানানো জঙ্গির প্রকৃত পরিচয় সম্পর্কে এখনও কোনও তথ্য প্রকাশ করেনি মার্কিন প্রশাসন। তবে মধ্যপ্রাচ্যের সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, ইহুদিদের বন্দি করে রাখা জঙ্গি আফিয়ার ভাই হতে পারে। তার একটি ছবিও প্রকাশ্যে এসেছে।

 

বন্ধ করুন