বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লকডাউন 'বিধি ভেঙে' ভাইরাল মুখ্যমন্ত্রী পুত্র, প্রশংসা কর্ণাটকের উপমুখ্যমন্ত্রীর
করোনা রোধে কড়া বিধি জারি কর্ণাটকে (ফাইল ছবি)
করোনা রোধে কড়া বিধি জারি কর্ণাটকে (ফাইল ছবি)

লকডাউন 'বিধি ভেঙে' ভাইরাল মুখ্যমন্ত্রী পুত্র, প্রশংসা কর্ণাটকের উপমুখ্যমন্ত্রীর

  • রাজ্যকে করোনা মুক্ত করার প্রার্থনা জানানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী পুত্র গিয়েছিলেন, দাবি উপমুখ্যমন্ত্রীর

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইতে নেমে কর্ণাটকে কড়া বিধি লাগু হয়েছে। ধর্মীয়স্থান খোলা ও জমায়েতের ক্ষেত্রেও নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। আর সেই বিধি ভাঙার অভিযোগ এবার খোদ মুখ্যমন্ত্রীর পুত্র বি ওয়াই বিজয়েন্দ্রর বিরুদ্ধে উঠেছে। তবে বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, তিনি রাজ্যকে করোনামুক্ত করার জন্য় মন্দিরে প্রার্থনা জানাতে গিয়েছিলেন । তিনি কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পার দ্বিতীয় সন্তান। এদিকে তাঁর সেই পুজো দেওয়ার ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা যাচ্ছে  তিনি শ্রীকান্তেশ্বর মন্দিরে সস্ত্রীক পুজো দিতে গিয়েছেন। কিছু মানুষও সেখানে শামিল হয়েছিলেন বলে অভিযোগ। আর বাসিন্দাদের দাবি এই ছবি তখনই সামনে আসছে যখন কোভিড অতিমারির ভয়াবহতা কর্ণাটকেও। 

আর বিজয়েন্দ্র করোনা সতর্কতাবিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এক জেলা থেকে অপর জেলায় গিয়ে যাবতীয় বিধি ভেঙেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। যেভাবে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ লাগামছাড়া হয়েছে তাতে এভাবে যাতায়াত কতটা যুক্তিযুক্ত তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তবে এব্যাপারে বিজয়েন্দ্রর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। তবে এনিয়ে কার্যত প্রশংসা পঞ্চমুখ কর্ণাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী লক্ষ্ণণ সাবাদি।প্রসঙ্গত বি ওয়াই বিজয়েন্দ্র কর্ণাটক বিজেপির সহ সভাপতিও। বেঙ্গালুরু থেকে প্রায় ১২৫ কিলোমিটার পেরিয়ে তিনি পুজো দিতে যান। এব্যাপারে কর্ণাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী লক্ষ্ণণ সাবাদি বলেন, ' করোনা যাতে রাজ্য থেকে দ্রুত চলে যায় সেকারণে তিনি পুজো দিতে গিয়েছিলেন। তিনি ভালো কাজই করেছেন। তিনি দলেরও সহ সভাপতি।রাজ্যকে করোনামুক্ত করার জন্য তিনি পুজো দিতে গিয়েছিলেন। '

বন্ধ করুন