বাড়ি > ঘরে বাইরে > রথ যাত্রা স্থগিত রাখার কৌশল ঠান্ডা মাথায় ভাবা হয়েছে, অভিযোগ পুরীর শংকরাচার্যের
ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পনা করে জগন্নাথের রথ যাত্রা বন্ধ করা হল, অভিযোগ পুরীর শংকরাচার্য স্বামী নিশ্চলানন্দ সরস্বতীর।
ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পনা করে জগন্নাথের রথ যাত্রা বন্ধ করা হল, অভিযোগ পুরীর শংকরাচার্য স্বামী নিশ্চলানন্দ সরস্বতীর।

রথ যাত্রা স্থগিত রাখার কৌশল ঠান্ডা মাথায় ভাবা হয়েছে, অভিযোগ পুরীর শংকরাচার্যের

  • দীর্ঘ কয়েক শতাব্দীর ইতিহাসে এ বারই প্রথম এই উৎসব পালনের উপরে আইনি নিষেধাজ্ঞা জারি হল।

করোনা সংক্রমণের অজুহাতে ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পনা করে এ বছর জগন্নাথের রথ যাত্রা বন্ধ করা হল, অভিযোগ পুরীর শংকরাচার্য স্বামী নিশ্চলানন্দ সরস্বতীর। 

দেশব্যাপী করোনা অতিমারীর কারণে চলতি বছরে পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের রথ যাত্রায় স্থগিতাদেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। দীর্ঘ কয়েক শতাব্দীর ইতিহাসে এ বারই প্রথম এই উৎসব পালনের উপরে আইনি নিষেধাজ্ঞা জারি হল। কিন্তু তার জেরে ওড়িশাজুড়ে তূব্র বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। 

আরও পড়ুন: কারফিউ জারি করে যন্ত্রে টানুক রথ, সুপ্রিম স্থগিতাদেশ তোলার আর্জি প্রধান সেবাইতের

এর আগেই কারফিউ জারি করে যন্ত্রচালিত রথ যাত্রার আবেদন জানিয়েছেন পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের প্রধান সেবাইত। বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্রও রথ যাত্রার অনুমোদন চেয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন। তাঁর আবেদনে উৎসবে জনসমাগম হবে না বলেও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে রথ যাত্রায় স্থগিতাদেশ জারি করল সুপ্রিম কোর্ট

শনিবার পুরীর রাজা তথা জগন্নাথ মন্দিরের প্রধান ব্যবস্থাপক গজপতি দিব্যসিং দেব ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের কাছে সুপ্রিম কোর্টের স্থগিতাদেশে আংশিক পরিবর্তন ঘটিয়ে রথ যাত্রা আয়োজনের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। 

এখনও পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে মোট চারটি আবেদন জমা পড়েছে শীর্ষ আদালতে। সব মিলিয়ে রথ যাত্রা স্থগিত নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে গোটা ওড়িশা।

বন্ধ করুন