বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সবচেয়ে বিপদজনক দেশ তালিবানি আফগানিস্তান! ভারত সুরক্ষায় কত নম্বর পেল?

সবচেয়ে বিপদজনক দেশ তালিবানি আফগানিস্তান! ভারত সুরক্ষায় কত নম্বর পেল?

ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই (PTI)

আফগানিস্তান ২০১৮ এবং ২০১৯ সালে পরিচালিত শেষ দুই সমীক্ষাতেও সর্বনিম্ন স্কোর পেয়েছিল। মহামারীর কারণে ২০২০ সালে সমীক্ষা করা হয়নি। তালিবানের আগ্রাসনের সমাপ্তির পরে হিংসার ঘটনার কিছুটা হ্রাসের স্কোর তুলনামূলকভাবে উন্নত হয়েছে।

Gallup's Law and Order Index 2022: প্রকাশিত হল আন্তর্জাতিক বিশ্লেষক সংস্থা Gallup-এর রিপোর্ট। আর তাতে এই নিয়ে টানা তৃতীয় বছর, বিশ্বের সবচেয়ে কম সুরক্ষিত দেশের তকমা পেল তালিবান-অধিকৃত আফগানিস্তান। প্রতিবেদনে পূর্ব এশিয়াকে সবচেয়ে নিরাপদ বলে ব্যাখা করা হয়েছে। তারপরেই স্থান দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার। রিপোর্টের নাম: 'মানুষের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার অনুভূতি এবং অপরাধ ও আইন প্রয়োগের বিষয়ে তাঁদের অভিজ্ঞতা'। এটি পরিমাপ করার জন্য চারটি প্রশ্ন করা হয়েছে অংশগ্রহণকারীদের। মোট ১২০টিরও বেশি দেশের প্রায় ১,২৭,০০০ মানুষের সাক্ষাত্কার নেওয়া হয়েছে। আরও পড়ুন : Global Hunger Index 2022- মাত্র ৩,০০০ জনের ভিত্তিতে সমীক্ষা, ক্ষুধা সূচক র‌্যাঙ্কিং প্রত্যাখ্যান কেন্দ্রের

ভারতের স্থান কোথায়? ভারত এই তালিকায় ৮০ পয়েন্ট স্কোর করেছে। প্রতিবেশী পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কারও নিচে। তবে পয়েন্টের ব্যবধানে তা খুবই সামান্য। কিন্তু, ব্রিটেন এবং বাংলাদেশের তুলনায় অনেকটাই উপরে। রিপোর্ট অনুসারে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মানুষের নিজের সুরক্ষা সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসের সবচেয়ে। মূলত সিঙ্গাপুর এবং ইন্দোনেশিয়ার উন্নত পুলিশি পরিষেবাই এর কারণ।

গ্যালাপের সূচকে বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ পাঁচটি দেশ

সিঙ্গাপুর- ৯৬

তাজিকিস্তান- ৯৫

নরওয়ে- ৯৩

সুইজারল্যান্ড- ৯২

ইন্দোনেশিয়া- ৯২

গ্যালাপের সূচকে পাঁচটি সবচেয়ে কম নিরাপদ দেশ

সিয়েরা লিওন- ৫৯

DR কঙ্গো- ৫৮

ভেনিজুয়েলা- ৫৫

গ্যাবন- ৫৪

আফগানিস্তান- ৫১

আফগানিস্তান ২০১৮ এবং ২০১৯ সালে পরিচালিত শেষ দুই সমীক্ষাতেও সর্বনিম্ন স্কোর পেয়েছিল। মহামারীর কারণে ২০২০ সালে সমীক্ষা করা হয়নি। তালিবানের আগ্রাসনের সমাপ্তির পরে হিংসার ঘটনার কিছুটা হ্রাসের স্কোর তুলনামূলকভাবে উন্নত হয়েছে। আরও পড়ুন : দেশের দশ সবচেয়ে দরিদ্র রাজ্যের তালিকা থেকে বেরিয়ে এসেছে পশ্চিমবঙ্গ: UN Report

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে, উত্তর আমেরিকা এবং পশ্চিম ইউরোপে প্রধানত পুলিশের প্রতি মানুষের আস্থা কমে গিয়েছে। বিশেষত জর্জ ফ্লয়েডের হত্যা সহ হাই-প্রোফাইল পুলিশি ঘটনার পরে পুলিশের প্রতি আস্থা নেই আমজনতার একটি বড় অংশের। আর সেই থেকেই পুলিশের বর্ণবিদ্বেষী মনোভাব বন্ধের জন্য আন্দোলন শুরু হয়েছে সেই দেশগুলিতে।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মার্চের শুরুতেই বাড়ল LPG সিলিন্ডারের দাম, কলকাতায় রান্নার গ্যাসের দর কত পড়বে? ODI স্ট্যাটাস পাওয়া দলের বিরুদ্ধে সব থেকে কম বয়সে T20I সেঞ্চুরি, যশস্বী-জাজাইকে টপকে বিশ্বরেকর্ড লেভিটের দু-মাসের অন্তঃসত্ত্বা দীপিকা, এয়ারপোর্টে বউকে আগলে রাখলেন রণবীর দেশের জন্য জান দিতে প্রস্তুত ‘যোদ্ধা’ই হাইজ্যাকার! ফের আর্মি ইউনিফর্মে সিদ্ধার্থ WPL 2024: জলে গেল মন্ধনার দাপুটে হাফ-সেঞ্চুরি, শেফালির ব্যাটে লড়াকু জয় দিল্লির একটানা ৬ দিন পরীক্ষা! ২০২৫ সালের উচ্চমাধ্যমিকের পুরো রুটিন দেখুন, কটায় শুরু হবে? ইস্টবেঙ্গলকে হারিয়ে মোহনবাগানদের পিছনে ফেলে এক নম্বর স্থান মজবুত করল ওড়িশা ‘‌নেতা অযোগ্য গ্রুপবাজ স্বার্থপর’‌, লোকসভা নির্বাচনের মুখে বিস্ফোরক কুণাল বাংলাকে ১০,৬৯২ কোটি টাকা দিল কেন্দ্র! DA-র জন্য দেওয়া হল? জানিয়ে দিলেন নির্মলা! ‘কখনও একদম ভেঙে পড়ি…’, তিন নম্বর বউয়ে মন মজে শোয়েবের,সানিয়া বললেন যন্ত্রণার কথা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.