বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কংগ্রেসের তিন প্রাক্তন নেতাকে দলের উঁচু পদে বসাল গেরুয়া শিবির

কংগ্রেসের তিন প্রাক্তন নেতাকে দলের উঁচু পদে বসাল গেরুয়া শিবির

প্রাক্তন কংগ্রেস মুখপাত্র জয়বীর শেরগিল ও প্রাক্তন পঞ্জাব সিএম অমরিন্দর সিং। 

পঞ্জাব দখলের জন্য বার বার চেষ্টা করেছে গেরুয়া শিবির। কিন্তু বার বারই ব্যর্থ হতে হয়। বর্তমানে পঞ্জাব গিয়েছে আপের দখলে। বিজেপির জয় এখনও অধরা।

অনিরুদ্ধ ধর

প্রাক্তন কংগ্রেস মুখপাত্র জয়বীর শেরগিলকে জাতীয় মুখপাত্র হিসাবে নিয়োগ করল বিজেপি। দলের তরফ থেকে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, প্রাক্তন পঞ্চাব মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং, সুনীল জাখর, প্রাক্তন উত্তরপ্রদেশের সভাপতি স্বতন্ত্র দেব সিংকে জাতীয় কার্যকরী কমিটির সদস্য নিযুক্ত করা হয়েছে।

এদিকে মদন কৌশিক , বিষ্ণ দেও সাই উত্তরাখণ্ড ও ছত্তিশগড়ের প্রাক্তন সভাপতি, রানা গুরমিত সিং সোধি, মনোরঞ্জন কালিয়া, অমনজোত কাউর রামুওয়ালিয়া, তিনজনই পঞ্জাবের, তাঁদের জাতীয় কর্মসমিতির সদস্য় করা হয়েছে।

শেরগিল পেশায় আইনজীবী। কংগ্রেসের নতুন মুখেদের মধ্যে তিনি ছিলেন অন্য়তম। যুব কংগ্রেসের কাছে তিনি ছিলেন অন্যতম ভরসার জায়গা। দক্ষ সংগঠক বলেও পরিচিত ছিলেন। গত ২৪ অগস্ট তিনি কংগ্রেস থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। তাঁর অভিযোগ ছিল যুব সমাজের আশা পূরণে ব্যর্থ কংগ্রেস। সেকারণেই তিনি দল ছেড়ে দেন। এবার তাঁকেই করা হল বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র।

এদিকে উল্লেখযোগ্যভাবে এবার কংগ্রেস থেকে ছেড়ে আসা নেতৃত্বকে উল্লেখযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পদে বসাল বিজেপি। এমনকী পঞ্জাব দখলের জন্য বার বার চেষ্টা করেছে গেরুয়া শিবির। কিন্তু বার বারই ব্যর্থ হতে হয়। বর্তমানে পঞ্জাব গিয়েছে আপের দখলে। বিজেপির জয় এখনও অধরা। সেক্ষেত্রে তবে কি কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলার চেষ্টা করছে বিজেপি? পঞ্জাবে নিজেদের প্রভাব বিস্তার করার জন্য় কি কংগ্রেসের প্রাক্তন নেতাদের ব্যবহার করতে চাইছে বিজেপি? এনিয়েই নয়া জল্পনা উসকে দিয়েছে খোদ বিজেপি নেতৃত্বই।

 

বন্ধ করুন