বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Tiger: নকল মানুষ ভয় দেখাবে বাঘমামাকে, কারেন্ট খাবে মানুষখেকো, বাঘ তাড়াতে নয়া ছক

Tiger: নকল মানুষ ভয় দেখাবে বাঘমামাকে, কারেন্ট খাবে মানুষখেকো, বাঘ তাড়াতে নয়া ছক

এভাবেই মানুষের ডামি বসানো হচ্ছে বাঘ তাড়াতে। (হিন্দুস্তান টাইমস)

বাঘকে ঘুমপাড়ানি গুলি করে কাবু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।তিনটি খাঁচা, ৪২টি ক্যামেরা ফাঁদ দুটি ড্রোনের টিম, তিনটি কুনকি হাতি, তিনটি পশু চিকিৎসকের টিমকে কাজে লাগানো হয়েছে। তবে এবার নকল মানুষ দিয়ে বাঘকে ভয় দেখানোর কাজ করা হবে।

মোহন রাজপুত

মানুষখেকো বাঘকে কিছুতেই ধরা যাচ্ছে না। নানা উপায় অবলম্বন করেও ধরা পড়ছে না বাঘ। মানুষের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ছে বাঘ। আর সেই বাঘকে মানুষের থেকে দূরে রাখতে এবার করবেট টাইগার রিজার্ভে অভিনব পথ অবলম্বন করা হচ্ছে। পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে একটি ডামি মানুষকে রাখা হবে। সেই ডামি মানবের চারদিকে সোলার এনার্জির বেড়া করা হবে। আর তাতে সামান্য কারেন্টও থাকবে।

ইতিমধ্যেই দিন চারেক আগে একটি মানুষের ডামি বসানো হয়েছে। কিন্তু এই ডামি বসিয়ে কীভাবে মানুষের থেকে দূরে রাখা হবে বাঘকে? সূত্রের খবর, ওই বাঘটি যখন আসল মানুষ ভেবে নকল মানুষকে আক্রমণ করবে তখন সেটি সামান্য কারেন্টের ঝটকা খাবে। তবে এর জেরে তার ব্যবহারিক পরিবর্তন হবে এমনটা নয়। কিন্তু কারেন্ট খাওয়ার পরে তার মানুষ সম্পর্কে কিছুটা ভয় ঢুকতে পারে। সেক্ষেত্রে সে আর মানুষের উপর হামলা না চালাতে পারে। এর মাধ্যমে মানুষ আর পশুর মধ্যে সংঘাত কিছুটা কমতে পারে। গোটা বিষয়টি পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে বলে খবর।

করবেট টাইগার রিজার্ভের ওয়ার্ডেন অমিত গোয়াসিকোটি জানিয়েছেন, বাঘটিকে ঘুম পাড়ানি গুলি দিয়ে কাবু করতে পশু চিকিৎসকের তিনটি টিম চেষ্টা করে যাচ্ছিল। কিন্তু ঘন জঙ্গলের জন্য এটা করা যায়নি। তবে এবার মানুষের ডামিকে জঙ্গল সংলগ্ন এলাকায় বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এদিকে পার্ক সংলগ্ন এলাকায় বাঘের হামলায় মারা গিয়েছেন পাঁচজন। সাত মাসে এই মৃত্যুর খবর মিলেছে। এরপরই বাঘকে ঘুমপাড়ানি গুলি করে কাবু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।তিনটি খাঁচা, ৪২টি ক্যামেরা ফাঁদ দুটি ড্রোনের টিম, তিনটি কুনকি হাতি, তিনটি পশু চিকিৎসকের টিমকে কাজে লাগানো হয়েছে। তবে এবার নকল মানুষ দিয়ে বাঘকে ভয় দেখানোর কাজ করা হবে। তার চারদিকে সামান্য বিদ্যুতের প্রবাহ চলবে। এদিকে যখন কেউ তাকে হাত দেবে তখন সামান্য কারেন্টের অনুভূতি তার হবে। এতে সে ভয় পেতে পারে। আর বাঘমামাকে ভয় দেখাতে নকল মানুষ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

গ্রামের কাছাকাছি এই ধরনের ডামি থাকবে। মানুষ ভেবে যখন সেটির উপর ঝাঁপিয়ে পড়বে বাঘটি তখনই আসল খেলা শুরু। এর জেরে আর গ্রামের ধারে কাছে যাবে না বাঘটি। তবে চারদিন আগে নকল মানুষ বসানো হয়েছে। কিন্তু এখনও হামলার খবর মেলেনি।

 

বন্ধ করুন