লোকসভায় মহুয়া মৈত্র। ফাইল ছবি (PTI)
লোকসভায় মহুয়া মৈত্র। ফাইল ছবি (PTI)

মাত্রা ছাড়িয়ে লোকসভায় স্পিকারের কাছে ধমক খেলেন মহুয়া মৈত্র

এদিন স্পিকার বলেন, মাত্রাজ্ঞান বজায় রেখে একজনের সাংসদের মন্তব্য করা উচিত। মহুয়া অনেক সময়ই সেই সীমা ছাড়াচ্ছেন।

অত্যুৎসাহিতার জন্য লোকসভার স্পিকারের কাছে ধমক খেলেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র। সোমবার সংসদের বাজেট অধিবেশন চলাকালীন জিরো আওয়ারে একটি প্রশ্ন উত্থাপন করতে চান মহুয়া। তখনই তাঁকে আচরণ ও ভাষা সংযত করতে নির্দেশ দেন স্পিকার ওম বিড়লা।

২০১৯-এ তৃণমূলের তরুণ ব্রিগেডের অন্যতম সদস্য মহুয়া মৈত্র। চাঁচাছোলা ইংরাজিতে যে কাউকে কাত করতে পারেন তিনি। সঙ্গে তাঁর আগ্রাসনও চোখে দেখার মতো। সংসদের ভিতরে হোক বা বাইরে সব সময় তাঁর দিকে নজর থাকে জনতার। সেই মহুয়াই এদিন ধমক খেলেন স্পিকারের কাছে।

এদিন স্পিকার বলেন, মাত্রাজ্ঞান বজায় রেখে একজনের সাংসদের মন্তব্য করা উচিত। মহুয়া অনেক সময়ই সেই সীমা ছাড়াচ্ছেন। এদিন স্পিকারের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ করেন মহুয়া। এর পরই স্পিকারের ভর্ৎসনার মুখে পড়েন তিনি। তৃণমূলের পরিষদীয় দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে মহুয়াকে সহবৎ শেখাতে নির্দেশ দেন স্পিকার। সঙ্গে মহুয়া যেন লোকসভায় তাঁর জন্য নির্দিষ্ট আসনেই বসেন তাও তাঁকে জানিয়ে দিতে নির্দেশ দিয়েছেন স্পিকার।

চলতি লোকসভায় তৃণমূলের অন্যতম হাতিয়ার মহুয়া মৈত্র। কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্র থেকে জিতে সাংসদ হয়েছেন তিনি।


বন্ধ করুন