বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লখিমপুরে পা রাখলেন তৃণমূলের তিন সাংসদ, কথা নিহত কৃষক পরিবারের সঙ্গে
গাড়ি জ্বলছে লখিমপুর খেরিতে। (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস এবং পিটিআই)
গাড়ি জ্বলছে লখিমপুর খেরিতে। (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস এবং পিটিআই)

লখিমপুরে পা রাখলেন তৃণমূলের তিন সাংসদ, কথা নিহত কৃষক পরিবারের সঙ্গে

  • এই পরিস্থিতিতে সেখানে পৌঁছল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধি দল। ওই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গাড়িতে পিষে কৃষকদের মৃত্যুতে এখন তোলপাড় উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর। আর তা নিয়ে আগেই সোচ্চার হয়ে ছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কৃষকদের আন্দোলন দেখে ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে যোগী আদিত্যনাথ সরকার। এই পরিস্থিতিতে সেখানে পৌঁছল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধি দল। ওই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। কংগ্রেসের প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকেও আটকে রাখা হয়েছিল।

উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে পৌঁছন তৃণমূল কংগ্রেসের তিন সাংসদ। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই ঘটনায় বলেছিলেন, রাম–রাজ্য নয়, উত্তরপ্রদেশে চলছে কিলিং রাজ। আজ দোলা সেন সংবাদমাধ্যমকে জানান, লখিমপুরে পৌঁছেছেন আবীররঞ্জন বিশ্বাস, প্রতিমা মণ্ডলকে সঙ্গে নিয়ে তিনি পৌঁছেছেন। তাঁরা কথা বলেছেন কৃষক নেতা এবং নিহত ৫ কৃষকের পরিবারের সঙ্গেও। তবে লখিমপুর খেরিতে যেতে পারেননি কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও সুস্মিতা দেব। যোগীর প্রশাসন তাঁদের বাধা দিয়েছে। তাই তাঁরা লখনউ ফিরে যান।

যে গাড়িতে কৃষকদের পিষে ফেলা হয়েছিল সেটায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস ছিলেন বলে অভিযোগ। তাই চরম বিপাকে পড়েছে মোদী সরকারও। আর আজ সকালে বিমানবন্দরে দোলা সেন জানান, তৃণমূল কংগ্রেসের পাঁচজনের একটি প্রতিনিধিদল উত্তরপ্রদেশ যাচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘‌লখিমপুরের খেরিতে কৃষক পরিবারের পাশে আছি আমরা। উত্তরপ্রদেশ–সহ দেশজুড়ে মানুষের ওপর যে অত্যাচার চলছে তা নজিরবিহীন।’‌

উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে পৌঁছন তৃণমূল কংগ্রেসের তিন সাংসদ। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই ঘটনায় বলেছিলেন, রাম–রাজ্য নয়, উত্তরপ্রদেশে চলছে কিলিং রাজ। আজ দোলা সেন সংবাদমাধ্যমকে জানান, লখিমপুরে পৌঁছেছেন আবীররঞ্জন বিশ্বাস, প্রতিমা মণ্ডলকে সঙ্গে নিয়ে তিনি পৌঁছেছেন। তাঁরা কথা বলেছেন কৃষক নেতা এবং নিহত ৫ কৃষকের পরিবারের সঙ্গেও। তবে লখিমপুর খেরিতে যেতে পারেননি কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও সুস্মিতা দেব। যোগীর প্রশাসন তাঁদের বাধা দিয়েছে। তাই তাঁরা লখনউ ফিরে যান।

যে গাড়িতে কৃষকদের পিষে ফেলা হয়েছিল সেটায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস ছিলেন বলে অভিযোগ। তাই চরম বিপাকে পড়েছে মোদী সরকারও। আর আজ সকালে বিমানবন্দরে দোলা সেন জানান, তৃণমূল কংগ্রেসের পাঁচজনের একটি প্রতিনিধিদল উত্তরপ্রদেশ যাচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘‌লখিমপুরের খেরিতে কৃষক পরিবারের পাশে আছি আমরা। উত্তরপ্রদেশ–সহ দেশজুড়ে মানুষের ওপর যে অত্যাচার চলছে তা নজিরবিহীন।’‌|#+|

এই বর্বরোচিত ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ট্যুইটে লেখেন, ‘‌তৃণমূল কংগ্রেসের পাঁচ সাংসদের প্রতিনিধিদল যাচ্ছে লখিমপুর খেরিতে। কৃষকদের পরিবারের পাশে দাঁড়াতে লখিমপুর খেরিতে যাচ্ছেন তাঁরা। কৃষক ভাইদের প্রতি বিজেপির বিরূপ মনোভাবে আমি ব্যথিত। কৃষকদের প্রতি সবসময় নিঃশর্ত সমর্থন থাকবে।’‌

বন্ধ করুন