বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জামিন করিয়ে দেব! থানার মধ্যেই মহিলাকে দিয়ে তেল মালিশ করালেন খালি গায়ে পুলিশ
এভাবেই মহিলাকে দিয়ে গা টিপিয়ে নিচ্ছেন পুলিশের এক এসআই। (টুইটার)
এভাবেই মহিলাকে দিয়ে গা টিপিয়ে নিচ্ছেন পুলিশের এক এসআই। (টুইটার)

জামিন করিয়ে দেব! থানার মধ্যেই মহিলাকে দিয়ে তেল মালিশ করালেন খালি গায়ে পুলিশ

  • সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই একেবারে হইহই কাণ্ড। এদিকে মহিলা যখন গা টিপছেন তখন ফোনে কথা বলছিলেন সাব ইনস্পেক্টর শশীভূষণ সিনহা। এদিকে সেই ভিডিয়ো দেখে ইতিমধ্যেই ওই পুলিশ আধিকারিককে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

পুলিশ নিয়ে অভিযোগের অন্ত নেই। তবে এবার বিহারের সহরসা জেলার নাওহাট্টা থানার পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ একেবারে ভয়াবহ। ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে খালি গায়ে কার্যত অর্ধনগ্ন অবস্থায় বসে রয়েছেন এক পুলিশ আধিকারিক। আর তার শরীর টিপে দিচ্ছেন এক মহিলা। অন্য এক মহিলা উল্টো দিকের চেয়ারে বসে রয়েছেন। তবে এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস ডিজিটাল বাংলা। অভিযোগ উঠেছে, ছেলের জামিনের জন্য ওই পুলিশ আধিকারিকের কাছে গিয়েছিলেন মহিলা। আর ছেলের জামিন করিয়ে দেওয়ার বিনিময়ে তিনি মাকে দিয়ে গা টিপিয়ে নেন। এমনকী সেটা একেবারে থানার ভেতরেই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই একেবারে হইহই কাণ্ড। এদিকে মহিলা যখন গা টিপছেন তখন ফোনে কথা বলছিলেন সাব ইনস্পেক্টর শশীভূষণ সিনহা। আইনজীবীকে তিনি বলছিলেন, জামিনের জন্য ১০ হাজার টাকা পাঠাব। দুই মহিলাকে প্রয়োজনীয় তথ্য ও আধার কার্ড নিয়ে আপনার সঙ্গে দেখা করতে বলব। সোমবার মহিলাকে পাঠিয়ে দেব বলেও তিনি জানান।

সহরসার পুলিশ সুপার লিপিকা সিংহ জানিয়েছেন, একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এসডিপিও পদমর্যাদার আধিকারিক ঘটনার তদন্ত করবেন। তবে প্রশ্ন উঠছে ভিডিয়োটি তুললেন কে? তার চেয়েও বড় প্রশ্ন এভাবে জামিন করিয়ে দেওয়ার বিনিময়ে মহিলাকে দিয়ে তেলমালিশ করিয়ে নেওয়া কতটা যুক্তিযুক্ত? তবে ইতিমধ্যেই বিহার পুলিশের ওই এসআইকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

বন্ধ করুন