বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > GST এড়ালেই হাতেনাতে ধরা পড়বে! মোদী সরকারের নয়া চাল
ফাইল ছবি: পিটিআই (PTI)

GST এড়ালেই হাতেনাতে ধরা পড়বে! মোদী সরকারের নয়া চাল

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মঙ্গলবার ও বুধবার আলোচনায় বসছে জিএসটি কাউন্সিল। কর ফাঁকি আটকানো সহ একাধিক বিষয়ে আলোচনার কথা।

কর ফাঁকি নিয়ে কড়া পদক্ষেপ। পণ্য ও পরিষেবা কর এড়ানো আটকানোর পদ্ধতি নিয়ে বেশ কয়েকটি ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনায় GST কাউন্সিল। কর সংগ্রহে ঘাটতি কীভাবে মোকাবিলা করা যায়, তাই নিয়ে তত্পর কেন্দ্র।

আরও, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মঙ্গলবার ও বুধবার আলোচনায় বসছে জিএসটি কাউন্সিল। কর ফাঁকি আটকানো সহ একাধিক বিষয়ে আলোচনার কথা।

অনলাইন গেমে কর

অনলাইন গেম, ক্যাসিনো এবং ঘোড়দৌড়ের উপর ২৮% পর্যন্ত কর আরোপ নিয়েও এদিন ছাড়পত্র দেওয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সোনা/মূল্যবান পাথরের আন্তঃ-রাজ্য চলাচল

GST কাউন্সিল ২ লক্ষ টাকা বা তার বেশি মূল্যের সোনা/মূল্যবান পাথরের আন্তঃ-রাজ্য চলাচল নিয়ে নয়া নীতি পেশ করতে পারে। এমন ক্ষেত্রে না 'ই-ওয়ে বিল' বাধ্যতামূলক করা হতে পারে।

একইসঙ্গে সোনা/মূল্যবান পাথর সরবরাহকারী করদাতাদের জন্য ই-ইনভয়েসিং বাধ্যতামূলক করার বিষয়ে রাজ্যের মন্ত্রীদের প্যানেলের একটি রিপোর্ট পেশ করা হবে। এ বিষয়ে পর্যালোচনা করবে কাউন্সিল। বার্ষিক মোট টার্নওভার ২০ কোটি টাকার উপরে, এমন করদাতাদের উপরেই নজর।

এই দু'দিন ক্রিপ্টোকারেন্সিতে কর নীতি নিয়েও আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

ই-কমার্স ব্যবসা

পণ্য বিক্রির জন্য ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে যথাক্রমে ৪০ লক্ষ এবং ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বার্ষিক টার্নওভার সহ ছোট ব্যবসার ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক রেজিস্ট্রেশনের নিয়ম শিথিল করার সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়াও, ১.৫ কোটি টাকা পর্যন্ত টার্নওভার এবং ই-কমার্স সাপ্লাইকারী সংস্থাগুলিকে কম্পোজিশন স্কিম বেছে নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। তাতে কম হারে কর এবং নিয়মাবলী শিথিল করা হবে।

রাজ্যদের ক্ষতিপূরণ?

গত ১ জুলাই, ২০১৭ থেকে GST চালু করা হয়েছিল। GST চালু করার কারণে, ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত রাজ্যগুলির যে রাজস্ব ক্ষতি হবে, তার ক্ষতিপূরণের আশ্বাসও দিয়েছিল কেন্দ্র।

ফলে, এই বৈঠকে সরব হতে পারে বিরোধী-শাসিত রাজ্যগুলি। রাজ্যগুলিকে ক্ষতিপূরণ প্রদানের বিষয়ে কাউন্সিলে দাবি তোলা হতে পারে।

বন্ধ করুন