আরএসএস-এর সাধারণ সম্পাদক সুরেশ ভাইয়াজি জোশি।
আরএসএস-এর সাধারণ সম্পাদক সুরেশ ভাইয়াজি জোশি।

ভারতের জন্য কাজ করতে হলে হিন্দুদের জন্য করতে হবে, দাবি আরএসএস নেতার

যদি ভারত এখনও ‘জীবিত’ থেকে থাকে, তা সম্ভব হয়েছে হিন্দুদের জন্যই। এ দেশের প্রাণভোমরা হলেন হিন্দুরা। যারাই এই দেশের জন্য কাজ করতে চাইবেন, তাঁদের হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্যই কাজ করতে হবে।

ভারতের জন্য কাজ করতে চাইলে হিন্দুদের জন্য কাজ করতে হবে। এমনই দাবি করলেন আরএসএস-এর সাধারণ সম্পাদক সুরেশ ভাইয়াজি জোশি। তাঁর মতে, হিন্দুরাই এই দেশের অন্তরাত্মা।

সম্প্রতি আরএসএঅস-এর ‘বিশ্বগুরু ভারত’ সম্মেলনে যোগ দিতে দুই দিনের গোয়া সফরে গিয়ে জোশি বলেন, ‘ভারতকে কখনও হিন্দেদের থেকে বিচ্ছিন্ন করা যাবে না। যদি ভারত এখনও ‘জীবিত’ থেকে থাকে, তা সম্ভব হয়েছে হিন্দুদের জন্যই। এ দেশের প্রাণভোমরা হলেন হিন্দুরা। যারাই এই দেশের জন্য কাজ করতে চাইবেন, তাঁদের হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্যই কাজ করতে হবে।’

তবে একই সঙ্গে জোশি মনে করিয়ে দিয়েছেন, অন্য সম্প্রদায়গুলির জন্য কাজ করার উপর তিনি নিষেধাজ্ঞা জারির কথা বলছেন না। তবে এ দেশে প্রধানত হিন্দুদের জন্যই কাজ করতে হবে বলে তিনি জানান।



আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গে ধর্মীয় বৈষম্যের শিকার হিন্দুরা, রাষ্ট্রপতিকে নালিশ করল BJP


অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত, যিনি জোশিকে নিয়ে প্রেক্ষাগৃহে প্রবেশ করেন। ছিলেন রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতারা।

ভাষণে জোশি আরও বলেন, ‘ভারত কখনও ফুরিয়ে যাবে না। বিশ্বের একমাত্র দেশ ভারত, যে এত অত্যাচার সহ্য করেছে। কিন্তু তারপরেও সে উঠে দাঁড়িয়েছে। আসলে ভারতের আদি-অন্ত নেই। একই ভাবে, হিন্দু সমাজও অমর। বিশ্বের কাছে এই সমস্ত সত্ত্ব তুলে ধরা আমাদের কর্তব্য। আমাদের এবার বলতে হবে, তোমাদের পথ এক রকম, আমাদের পথও একটিই।’

জোশির দাবি, বিশ্বকে সমন্বয় ও ঐক্যের পাঠ দেবে শুধু ভারতই। তাঁর মতে, সেই দুরূহ কাজের ভার নিতে পারেন শুধুমাত্র হিন্দুরা।

বন্ধ করুন