ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১.৪৭ কোটি টাকা লেনদেনের জন্য কর হিসেবে ২.৫৯ লাখ টাকা দাবি করে দরিদ্র দিনমজুরকে নোটিশ পাঠাল আয়কর দফতর। (ছবিটি প্রতীকী)
ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১.৪৭ কোটি টাকা লেনদেনের জন্য কর হিসেবে ২.৫৯ লাখ টাকা দাবি করে দরিদ্র দিনমজুরকে নোটিশ পাঠাল আয়কর দফতর। (ছবিটি প্রতীকী)

দিনমজুরের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কোটি টাকার লেনদেন, ২.৫৯ লাখ টাকা করের নোটিশ

সোনাধরের অভিযোগ, তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে মোটা টাকার লেনদেনের পিছনে রয়েছে তাঁর নিয়োগকর্তার কারসাজি। অভিযোগ, তাঁর গ্রামেরই বাসিন্দা জনৈক পাপ্পু আগরওয়াল তাঁর সই জাল করে প্রতারণার পরিকল্পনা করেছে।

ব্যাঙ্কে ১.৪৭ কোটি টাকা লেনদেনের জন্য কর হিসেবে ২.৫৯ লাখ টাকা দাবি করে পাঠানো আয়কর দফতরের নোটিশ পেয়ে হতবাক ওডিশার দিনমজুর সোনাধর গাণ্ড।

জীবনে একসঙ্গে লাখ টাকা যিনি দেখেননি তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কোটি টাকার লেনদেন হয়েচে বলে দাবি আয়কর দফতরের। দফতরের পাঠানো নোটিশে স্পষ্ট জানানো হয়েচে, পুর্জারিভারান্ডি গ্রামের বাসিন্দা সোনাধরের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১ কোটি ৪৭ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে এবং তার জেরেই তাঁর মাথার উপর চাপানো হয়েছে মোটা আয়করের বোঝা।

সংবাদমাধ্যমের সওয়ালের জবাবে হতবাক দিনমজুর জানিয়েছেন, ‘আয়কর দফতর থেকে নোটিশ দিয়ে বলা হয়েচে, আমাকে ২.৫৯ লাখ টাকা কর সদিতে হবে। বুঝতে পারছি না, কোথা থেকে পাবো এত টাকা?’

জানা গিয়েছে, দরিদ্র এই দিনমজুরকে ২০১৪-১৫ সালের আর্থিক সমীক্ষার ভিত্তিতে নোটিশ পাঠিয়েছে আয়কর দফতর। সোনাধরের অভিযোগ, তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে মোটা টাকার লেনদেনের পিছনে রয়েছে তাঁর নিয়োগকর্তার কারসাজি।



Budget 2020- কর সংক্রান্ত অর্থমন্ত্রীর আট বড় ঘোষণা


সোনাধরের অভিযোগ, তাঁর গ্রামেরই বাসিন্দা জনৈক পাপ্পু আগরওয়াল তাঁর সই জাল করে প্রতারণার পরিকল্পনা করেছে।

তাঁর দাবি, ‘প্রায় সাত বছর আগরওয়ালের কাছে চাকরি করেছি। সেই সময় তিনি আমার জমির পাট্টা চেয়েছিলেন, যা তাঁকে আমি দিই। জানি না, তাই নিয়ে তিনি কী করেছেন। এখন আয়কর দফতর আমাকে নোটিশ পাঠিয়ে আমার আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে মোটা টাকার লেনদেন হয়েছে বলে জানিয়েছে।’

সোনাধর জানিয়েছেন, জমি পাট্টা নেওয়ার সময় তাঁকে দিয়ে সাদা কাগজে সই করিয়ে নিয়েছিলেন পাপ্পু আগরওয়াল। অভিযোগ, সেই সই জাল করে কর্মচারীর উপর করের বোঝা চাপানোর ফন্দি এঁটেছিলেন এই ব্যবসায়ী।

বন্ধ করুন