বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জরুরি অবতরণের সময় বিপত্তি, অল্পের জন্য রেহাই ট্রুজেটের উড়ানের
চেন্নাই বিমানবন্দরে সেই উড়ানটি (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
চেন্নাই বিমানবন্দরে সেই উড়ানটি (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

জরুরি অবতরণের সময় বিপত্তি, অল্পের জন্য রেহাই ট্রুজেটের উড়ানের

  • পাঁচজন বিমানকর্মী, এক শিশু-সহ বিমানে মোট ৫২ জন ছিলেন।

বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল ট্রুজেটের একটি উড়ান। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে চেন্নাই বিমানবন্দরে নামার সময় বিমানটি রানওয়েতে আটকে যায়। সফলভাবে অবতরণ করতে না পারলেও বিমানের সব যাত্রী এবং কর্মীরা সুরক্ষিত আছেন।

চেন্নাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, সোমবার বেলগাম থেকে মাইসুরু যাচ্ছিল বিমানটি। মাঝ আকাশে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিমানটি নিয়ে চেন্নাইয়ে জরুরি অবতরণের চেষ্টা করেন পাইলট। নাম গোপন রাখার শর্তে এক আধিকারিক বলেন, ‘যান্ত্রিক কারণে বিমানটি চেন্নাইয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়।’

কিন্তু চেন্নাই বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিপত্তি ঘটে। সন্ধ্যা ৭ টা ৫১ মিনিটে বিমানটি নামছিল চেন্নাইয়ে। ওই আধিকারিক বলেন, ‘জেট এয়ারওয়েজের একটি বিমান ট্রুজেটের (২টি ৫৪৩) হয়ে চলাচল করছিল। বেলগাম থেকে সেটি উড়েছিল এবং মাইসুরুতে যাচ্ছিল। কিন্তু সেখানে যাওয়া যায়নি এবং চেন্নাইয়ে বিমান ঘুরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন পাইলট। মনে হচ্ছে যে ল্যান্ডিং গিয়ারের কিছু সমস্যা ছিল। তার জেরে চেন্নাইয়ে বিমানের হার্ড ল্যান্ডিং (যা সাধারণভাবে অবতরণ করে না, যাত্রীদের সমস্যার সম্মুখীন হন এবং বিমানের ক্ষতি হয়) হয়। ’

তবে এড়ানো গিয়েছে বড়সড় দুর্ঘটনা। সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, পাঁচজন বিমানকর্মী, এক শিশু-সহ বিমানে মোট ৫২ জন ছিলেন। তাঁদের সবাইকে সুরক্ষিতভাবে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে দুর্ঘটনার জেরে প্রায় ৪৫ মিনিট মূল রানওয়েতে বিমান চলাচল বন্ধ ছিল। তার জেরে একাধিক বিমানের ওঠানামায় দেরি হয়। ঘুরিয়ে দেওয়া হয় একাধিক বিমান।

বিষয়টি নিয়ে ডিরেক্টর জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশনের (ডিজিসিএ) ডিরেক্টর জেনারেল অরুণ কুমার জানিয়েছেন, তদন্ত শুরু হয়েছে। তাঁর কথায়, ‘কেউ আহত হননি এবং তদন্তের পর দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ জানা যাবে।’

বন্ধ করুন