ট্রাম্প সফরের দিকে তাকিয়ে রয়েছে ভারত (ছবি সৌজন্য এপি)
ট্রাম্প সফরের দিকে তাকিয়ে রয়েছে ভারত (ছবি সৌজন্য এপি)

ভারত সফরে ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়টি তুলবেন ট্রাম্প, জানালেন মার্কিন আধিকারিক

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর 'মেক ইন ইন্ডিয়া'-র প্রতি কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছেন ওই আধিকারিক।

অতিথিকে 'খুশি' করতে চেষ্টার কোনও কসুর করছে না প্রশাসন। কিন্তু অতিথি তথা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বারেবারেই অস্বস্তি বাড়াছে নরেন্দ্র মোদী সরকারের। আবারও সেরকম ইঙ্গিত দিলেন ট্রাম্প প্রশাসনের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক।

আরও পড়ুন : লক্ষাধিক মানুষ ট্রাম্পকে স্বাগত জানাবেন, বললেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী রুপানি

আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি দু'দিনের ভারত সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেজন্য একেবারে সাজোসাজো রব পড়ে গিয়েছে। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় রাস্তা পরিষ্কার করা হচ্ছে। বস্তি ঢাকতে পাঁচিল তোলা হচ্ছে। ট্রাম্পের যাত্রাপথে এমন রাস্তার সেতুও সারাই করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : ট্রাম্পের যাত্রাপথে ঝুপড়ি, দেওয়াল দিয়ে ঢাকছে গুজরাত সরকার

তাতে ট্রাম্প মুগ্ধ হবেন কিনা, তা সময় বলবে। তবে সেই সফরে মোদী সরকারের অস্বস্তি বাড়াতে চলেছেন বলে ইঙ্গিত দিলেন ট্রাম্প প্রশাসনের আধিকারিকরা। এক আধিকারিক জানান, সংখ্যালঘুদের সঙ্গে ভালো আচরণের বিষয়টি উত্থাপন করবেন ট্রাম্প। পাশাপাশি দ্বিপাক্ষিকভাবে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার জন্য ভারত ও পাকিস্তানকে আর্জি জানাবেন তিনি। ওই আধিকারিক বলেন, 'পারস্পরিক আলোচনা ও জনসমক্ষে বক্তৃতা দু'জায়গাতেই আমাদের গণতন্ত্র ও স্বাধীনতার ঐতিহ্য নিয়ে কথা বলবেন ট্রাম্প। বিশেষত তিনি ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়টি উত্থাপন করবেন। যা এই ট্রাম্প প্রশাসনের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।'

আরও পড়ুন : মোদী বলেছেন, আমদাবাদে ৫০-৭০ লাখ মানুষ আসবেন অভ্যর্থনা জানাতে, দাবি ট্রাম্পের

অন্যদিকে, ভারত-মার্কিন বাণিজ্য চুক্তি নিয়েও আশার আলো শোনাননি ওই আধিকারিক। বরং সেই চুক্তির বাস্তবায়নের দায় ভারতের উপর নির্ভর করবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায় স্পষ্ট, ভারত সফরে আগে নিজের আখের গোছানোর চেষ্টা করবেন ট্রাম্প। তাই বাণিজ্য সংক্রান্ত অসুবিধা ও শুল্ক হার নিয়ে আলোচনা করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

আরও পড়ুন : ভারতে ট্রাম্পকে স্মরণীয় অভ্যর্থনা জানানো হবে, বললেন মোদী

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর 'মেক ইন ইন্ডিয়া'-র প্রতি কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছেন ওই আধিকারিক। তাঁর দাবি, 'ভারতে সংরক্ষণবাদ নিয়ে যে উদ্বেগ তা আরও বাড়িয়েছে 'মেক ইন ইন্ডিয়া'।'

বন্ধ করুন