পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স) 
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স) 

‘পাকিস্তানের IQ বোঝা যাচ্ছে’, ভারতকে চাপে ফেলতে গিয়ে হাস্যকর ভুল ইমরান খানদের

  • এক নেটিজেন বলেন, ‘আরআইপি সাধারণ বোধ। মাইনাস ৪ সর্বোচ্চ এবং মাইনাস এক সর্বনিম্ন? কোন গ্রহের বিজ্ঞান পড়েছ?’

উদ্দেশ্য ছিল, ভারতের উপর পালটা চাপ তৈরি করা। তা তো হলই না। উলটে টুইটারে ব্যাপক ট্রোলের মুখে পড়ল পাকিস্তান।

ঘটনাটি ঠিক কী? দিনকয়েক আগে থেকে ভারতের মৌসম ভবন জম্মু ও কাশ্মীরের সাব-ডিভিশনকে জম্মু ও কাশ্মীর, লাদাখ, পাকিস্তান অধিকৃত গিলগিট-বাল্টিস্তান এবং মুজফ্‌ফরাবাদ হিসেবে উল্লেখ শুরু করে। ইমরান খান প্রশাসনকে বার্তা দিতেই সাউথ ব্লকের তরফে এই পদক্ষেপ করা হয়েছে বলে কূটনৈতিক মহলে ধারণা ছড়ায়।

ভারতের চাপ বাড়ানোর সেই কৌশলের পালটা হিসেবে লাদাখের আবহাওয়া রিপোর্ট ঘোষণা করে পাকিস্তান। রেডিয়ো পাকিস্তানের তরফে তা টুইটারে পোস্টও করা হয়। তাতে লেখা হয়, ‘লাদাখে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে মাইনাস চার ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এবং ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে মাইনাস এক ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড।’

সেই টুইট (ছবি সৌজন্য এএনআই)
সেই টুইট (ছবি সৌজন্য এএনআই)

তারপরই চূড়ান্ত ট্রোলের শিকার হয় পাকিস্তানের রেডিয়ো। কোনওরকমভাবে পাকিস্তানকে বেয়াত করেননি নেটিজেনরা। এক টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, ‘এই টুইট পড়ে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ মর্যাদা ও সর্বনিম্ন আইকিউ বোঝা গিয়েছে।’ কেউ কেউ মহম্মদ আলি জিন্নার ছবি পোস্ট করেন। কেউ আবার খোঁচা দিয়ে বলেন, ‘বাবাকে (ভারত) কপি কর না।’ এক নেটিজেন বলেন, ‘আরআইপি সাধারণ বোধ। মাইনাস ৪ সর্বোচ্চ এবং মাইনাস এক সর্বনিম্ন? কোন গ্রহের বিজ্ঞান পড়েছ?’

যথেচ্ছ ট্রোলের মুখে পড়ে সেই টুইটটি ডিলিট করে দিতে বাধ্য হয় পাকিস্তানের রেডিয়ো। তবে যথারীতি স্ক্রিনশট তুলে নিয়ে নেট দুনিয়ায় ট্রোল অব্যাহত রয়েছে।

বন্ধ করুন