বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‌বিয়েবাড়ি থেকে ফিরছিলেন দুই কিশোরী, তারপর.‌.‌.‌
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

‌বিয়েবাড়ি থেকে ফিরছিলেন দুই কিশোরী, তারপর.‌.‌.‌

  • রিয়াদ এলাকায় কুখ্যাত দুষ্কৃতী হিসাবেই পরিচিত। এই রিয়াদের বিরুদ্ধে তোলাবাজ, ছিনতাই, ইভটিজিংয়ের মতো ভুরি ভুরি অভিযোগ রয়েছে।

বিয়ে বাড়ি সেরে ফিরছিলেন দুই কিশোরী। তখন তাঁদের পথ আটকে দাঁড়ায় কিছু যুবক। তারপর মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে গণধর্ষণ করা হয় তাঁদের। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশে ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানা এলাকায়। গত ৩০ ডিসেম্বর হালুয়াঘাট থানা এলাকার কাটাবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা দুই কিশোরী বিয়ে বাড়ি সেরে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় তাঁদের পথ আটকে দাঁড়ায় ৬ জন যুবক।

 তাঁদেরকে খুনের হুমকি দিয়ে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। কিশোরীদের খুনের হুমকি দেওয়ায় তাঁরা তাঁদের পরিবারের সদস্যদের জানাতে দেরি করে। শেষ পর্যন্ত এক কিশোরী অভিযোগ করলে তাঁর বাবা হালুয়াঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। শুক্রবার রাতে এই গণধর্ষণ কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত সোলায়মান হোসেন রিয়াদকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

 

জানা গিয়েছে, এই রিয়াদ এলাকায় কুখ্যাত দুষ্কৃতী হিসাবেই পরিচিত। এই রিয়াদের বিরুদ্ধে তোলাবাজ, ছিনতাই, ইভটিজিংয়ের মতো ভুরি ভুরি অভিযোগ রয়েছে। এই প্রসঙ্গে ময়মনসিংহ জেলার গোয়ান্দা পুলিশের কর্মকর্তা মহম্মদ সফিকুল ইসলাম জানান, ‘‌এই ঘটনায় রিয়াদ ছাড়া পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁদের ময়মনসিংহ ও গাজিপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই অভিযুক্তরা হলেন মিয়া হোসেন, শরিফ, হামিদ, রোকন ও মিজান।’‌

বন্ধ করুন