বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বিনা টিকিটের যাত্রীকে মাটিতে ফেলে মার টিকিট পরীক্ষকের, Video দেখে রেল যা করল…

বিনা টিকিটের যাত্রীকে মাটিতে ফেলে মার টিকিট পরীক্ষকের, Video দেখে রেল যা করল…

ট্রেনে ওঠার জন্য যাত্রীদের হুড়োহুড়ি। সংগৃহীত ছবি

এই ঘটনায় শোরগোল পড়েছে রেলের অন্দরে। বিনা টিকিটে স্লিপার কোচে চেপে পড়ার জেরে যাত্রীকে জরিমানা করার মধ্যে দোষের কিছু নেই। তবে তার উপর এভাবে হামলার ঘটনাকে ঘিরে প্রশ্ন উঠছে। সোশ্য়াল মিডিয়ায় এনিয়ে নানা প্রশ্ন তুলছেন নেট নাগরিকরা।

আদিত্য নাথ ঝা, পিটিআই

বৈধ টিকিট ছাড়াই ট্রেনে চড়েছিলেন এক ব্য়ক্তি । আর সেই অভিযোগে সেই যাত্রীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছে টিটিইর বিরুদ্ধে। তবে এই ঘটনায় এবার সেই দুজন টিকিট পরীক্ষককে সাসপেন্ড করা হল। রেল সূত্রে খবর। শুক্রবার রেল আধিকারিকরা একথা জানিয়েছেন। পূর্ব মধ্য রেলওয়ে জোনের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক বীরেন্দ্র কুমার জানিয়েছেন, ২রা জানুয়ারি পবন এক্সপ্রেস মুম্বই থেকে আসছিল। ট্রেনটি জয়নগরের দিকে যাচ্ছিল।

এদিকে সেই সংক্রান্ত একটি ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরছে। সিপিআরও জানিয়েছেন, মুজফ্ফর স্টেশন দিয়ে ট্রেনটি আসছিল। সেই সময় এই যাত্রীকে টিকিট দেখাতে বলা হয়েছিল। সেই সময় কিছুটা বচসা হয়। ওই যাত্রী স্বীকার করেন তার কাছে টিকিট নেই।

এদিকে সেই ভিডিয়ো ক্লিপে দেখা যায় ওই ব্যক্তি স্লিপার কোচের আপার বার্থে বসে ছিলেন। তাকে টেনে নামাতে গেলে চেকারকে তিনি লাথি মারেন বলে অভিযোগ। এরপর অপর চেকার তাকে জ্যাকেট ধরে টেনে নামান। এরপর তার পা চেপে ধরে মাটিতে চেপে ধরা হয়। ওই যাত্রী বার্থটা আঁকড়ে ধরেছিলেন। এরপর ওই চেকাররা বুট দিয়ে ওই যাত্রীকে একের পর এক লাথি মারেন বলে অভিযোগ। তার মুখেও লাথি মারা হয়।এরপর অন্যান্য যাত্রীরা এগিয়ে এসে কোনওরকমে ওই যাত্রীকে রক্ষা করেন। তবে ওই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করতে পারেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা।

সিপিআরও জানিয়েছেন, টিকিট পরীক্ষকরা ওই যাত্রীকে জরিমানা করেছিলেন। বিনা টিকিটের যাত্রী হিসাবে তাকে জরিমানা করা হয়েছিল। সেটা আইন মেনে করা হয়েছিল। কিন্তু আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়াটা ঠিক নয়। তাদের সাসপেন্ড করা হয়েছে।

সাসপেন্ড হওয়া ওই দুই টিটিইর নাম গৌতম কুমার পাণ্ডে ও নরেশ কুমার। সমস্তিপুর রেলওয়ে ডিভিশনের আওতায় তারা দুজনেই জয়নগর রেল স্টেশনে পোস্টিং রয়েছেন।

এদিকে এই ঘটনায় শোরগোল পড়েছে রেলের অন্দরে। বিনা টিকিটে স্লিপার কোচে চেপে পড়ার জেরে যাত্রীকে জরিমানা করার মধ্যে দোষের কিছু নেই। তবে তার উপর এভাবে হামলার ঘটনাকে ঘিরে প্রশ্ন উঠছে। সোশ্য়াল মিডিয়ায় এনিয়ে নানা প্রশ্ন তুলছেন নেট নাগরিকরা। এভাবে আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়াটাকে একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না বাসিন্দারা। তবে ভিডিয়ো সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসে পুলিশ। দুই টিকিট পরীক্ষককেই আপাতত সাসপেন্ড করা হয়েছে।

 

বন্ধ করুন