বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নর্দমায় হামাগুড়ি, পাঁচিল টপকে পালাল ২ বন্দি, ৩৫ ঘণ্টা পর থামল ‘ফিল্মি’ ধরপাকড়
নর্দমায় হামাগুড়ি, পাঁচিল টপকে পালাল ২ বন্দি, ৩৫ ঘণ্টা পর থামল ‘ফিল্মি’ ধরপাকড় (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
নর্দমায় হামাগুড়ি, পাঁচিল টপকে পালাল ২ বন্দি, ৩৫ ঘণ্টা পর থামল ‘ফিল্মি’ ধরপাকড় (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

নর্দমায় হামাগুড়ি, পাঁচিল টপকে পালাল ২ বন্দি, ৩৫ ঘণ্টা পর থামল ‘ফিল্মি’ ধরপাকড়

  • হেঁটে ও সাইকেলে প্রায় ৬৫ কিলোমিটার পাড়ি দিয়েছিল।

প্রথমে শৌচাগারের নর্দমায় হামাগুড়ি  দিয়ে ব্যারাকের বাইরে বেরিয়েছিল। তারপর জেলের ১৮ এবং ২০ ফুট দুটি উঁচু পাঁচিল টপকে পগারপার। হেঁটে ও সাইকেলে প্রায় ৬৫ কিলোমিটার পাড়ি দিয়েছিল। কিন্তু সেই ফিল্মি কায়দায় পালিয়ে কোনও লাভ হল না। ৩৫ ঘণ্টা পর পুলিশের জালে ধরা পড়ল দুই বিচারধীন বন্দি। ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের।

রায়বরেলির পুলিশ সুপার শ্লোক কুমার জানান, রঞ্জিত কুমার (২১) এবং শারদা প্রসাদ  (১৯) নামে ওই দু'জন রায়বরেলি জেলে বন্দি ছিল। সোমবার মধ্যরাতে সেখান থেকে পালায় তারা। পরে রায়বরেলি পুলিশের আওতাভুক্ত সালোন এবং শিবগড় থানা এলাকায় বাড়ির কাছে তাদের পৃথকভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

পুলিশ সুপার বলেন, ‘এক নাবালিকাকে নিয়ে পালানো এবং ধর্ষণের দায়ে জেলে ছিল রঞ্জিত কুমার। আর চুরির অভিযোগে শারদা প্রসাদের জেলে ঠাঁই হয়েছিল। এখন ওদের বিরুদ্ধে আরও দুটি মামলা দায়ের হয়েছে। একটি জেল থেকে পালানোর এবং পালানোর সময় একটি সাইকেল চুরির জন্য। বুধবার ভোরের দিকে তাদের ৩৫ ঘণ্টা পলায়ন যাত্রায় ইতি পড়েছে।'

এক শীর্ষ জেলকর্তা জানিয়েছেন, দু'জনকে আপাতত পৃথক ব্যারাকে রাখা হয়েছে। বাড়তি নিরাপত্তারও বন্দোবস্ত করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমরা বিশেষভাবে নজর রাখছি। কারণ এখন এটা প্রমাণিত যে দু'জনে ২০ ফুট লম্বা পাঁচিলও টপকাতে পারে।’

রাজ্যের জেলের সদর দফতরের মুখপাত্র সন্তোষ কুমার জানিয়েছেন, ডিআইজি (জেল) শরৎ ত্রিপাঠির তদন্তের পর রায়বলেলি জেলের হেড ওয়ার্ডেন রমেশ চন্দ্র এবং দুই ওয়ার্ডার রাম রাজ এবং অনিল কুমার সিংকে বরখাস্ত করা হয়েছে। আরও চারজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বন্ধ করুন