বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শুয়োরের জেলাটিন ব্যবহার করলেও কোভিড ভ্যাক্সিনে ছাড় আমিরশাহি ফতোয়া কাউন্সিলের
‘মানবদেহ রক্ষার’ স্বার্থে শুয়োরের জেলাটিন থেকে তৈরি টিকা গ্রহণের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে না।
‘মানবদেহ রক্ষার’ স্বার্থে শুয়োরের জেলাটিন থেকে তৈরি টিকা গ্রহণের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে না।

শুয়োরের জেলাটিন ব্যবহার করলেও কোভিড ভ্যাক্সিনে ছাড় আমিরশাহি ফতোয়া কাউন্সিলের

  • সংযুক্ত আরব আমিরশাহি ফতোয়া কাউন্সিল জানিয়েছে, কোভিড ভ্যাক্সিন তৈরি করতে শুয়োরের দেহাংশ ব্যবহার করা হলেও তা মুসলিম রাষ্ট্রে প্রয়োগ করা যাবে।

শুয়োরের দেহ নিঃসৃত জেলাটিন ব্যবহার করলেও করোনাভাইরাস প্রতিষেধক ব্যবহারের অনুমোদন দিল সংযুক্ত আরব আমিরশাহির সর্বোচ্চ ইসলামিক কর্তৃপক্ষ। 

সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরশাহি ফতোয়া কাউন্সিল জানিয়েছে, কোভিড ভ্যাক্সিন তৈরি করতে শুয়োরের দেহাংশ ব্যবহার করা হলেও তা মুসলিম রাষ্ট্রে প্রয়োগ করা যাবে। 

অধিকাংশ ভ্যাক্সিনে শুয়োরের দেহাংশ থেকে তৈরি জেলাটিন ব্যবহারের কারণে মুসলিম রাষ্ট্রগুলিতে কোভিড প্রতিষেধক টিকাকরণ প্রক্রিয়া বাধার সম্মুখীন হতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়। উল্লেখ্য, ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা শুয়োরজাত পণ্যকে ‘হারাম’ বা নিষিদ্ধ মনে করেন। 

আমিরশাহির ফতোয়া কাউন্সিলের চেয়ারম্যান শেখ অবদাল্লাহ বিন বায়াহ জানিয়েছেন, শুয়োরজাত পণ্যকে ইসলাম ধর্মে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলেও ‘মানবদেহ রক্ষার’ স্বার্থে শুয়োরের জেলাটিন থেকে তৈরি টিকা গ্রহণের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে না। 

কাউন্সিলের মতে, এ ক্ষেত্রে শুয়োরের জেলাটিন ওষুধ হিসেবে গ্রহণ করা হবে, খাদ্য হিসেবে নয়। ‘সামাজিক শত্রুকে’ নিকেশ করতে তাই এযাবৎ নিষিদ্ধ শুয়োরের দেহাংশ ওষুধ হিসেবে গ্রহণ করতে আপত্তি তুলছে না ফতোয়া কাউন্সিল।

প্রসঙ্গত, কোভিড সংক্রমণ রোধ করতে ইতিমধ্যে বেশ কিছু সম্ভাব্য ভ্যাক্সিন আত্মপ্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। অতিমারী পরিস্থিতিতে বিপন্মুক্ত হওয়ার জন্য ধর্মীয় নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে টিকাকরণকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে ইসলামিক দুনিয়া।

বন্ধ করুন