বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাস্ক পরতে বলায় ক্যাব চালকের গায়ে কেশে দিল যুবতী, তারপর যা হল...
ছবি: টুইটার (Twitter) (Twitter)
ছবি: টুইটার (Twitter) (Twitter)

মাস্ক পরতে বলায় ক্যাব চালকের গায়ে কেশে দিল যুবতী, তারপর যা হল...

ওঠার পর থেকেই উন্মত্ত আচরণ করতে শুরু করেন তাঁরা। অভব্য আচরণ, অকারণ গালিগালাজ কিছুই বাদ যায়নি। তবুও হাসিমুখে ভদ্র ব্যবহার করছিলেন শুভাকর। খালি হাসিমুখে বলেন, 'মাস্কটা পরে নিন'।

দয়া করে মাস্ক পরে নিন। সামান্য অনুরোধ। কিন্তু তাতেই তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠল তরুণী। গাড়ির মধ্যেই চালকের সঙ্গে শুরু করলেন হুলস্থুল কান্ড।

করোনা পরিস্থিতির ১ বছর হতে চলল। কিন্তু এখনও মাস্ক পরতে বেশ অনীহা অনেকেরই। তবে, মাস্ক পরতে বলায় যে কেউ এমন চটতে পারেন, তা সত্যিই অবিশ্বাস্য।

ঘটনাটি সান ফ্রান্সিস্কোর বেভিউ এলাকার। শুভাকর খাড়কা নামের এক উবার চালক রোজকার মতোই গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন। এই সময়েই তিন যুবতী রাইড বুক করে তাঁর ক্যাবে ওঠে।

ওঠার পর থেকেই উন্মত্ত আচরণ করতে শুরু করেন তারা। অভব্য আচরণ, অকারণ গালিগালাজ কিছুই বাদ যায়নি। তবুও হাসিমুখে ভদ্র ব্যবহার করছিলেন শুভাকর। খালি হাসিমুখে বলেন, 'মাস্কটা পরে নিন'।

এটুকু শুনেই হঠাৎ তান্ডব শুরু করে দেন তরুণীরা। তার মধ্যে চালকের ঠিক পেছনে বসা তরুণী হাত বাড়িয়ে কেড়ে নিতে যায় চালকের ফোন। ছিঁড়ে দেয় মাস্ক। তার সঙ্গে তীব্র গালিগালাজ।

পুরো ঘটনাটাই ধরা পড়েছে ক্যাবের ভিতরের ছোট্ট ক্যামেরায়। দেখুন সেই ভিডিয়ো।

শুধু তাই নয়, গাড়ির ভিতর অকারণে পেপার স্প্রে-ও করে দেয় ওই মহিলা যাত্রীরা। তারপর চালক গাড়ি চালাতে নারাজ হলে নেমে যায় তারা।

এরপরেই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন উবার চালক। পুলিশ আপাতত তরুণীদের খোঁজ করছে। সেই সঙ্গে উবারের তরফ থেকেও শুভাকরের প্রতি সহানুভুতি জানানো হয়। 

পেপার স্প্রের ফলে গাড়ির ইন্টিরিয়র নোংরা হয়ে যাওয়ায় তা পরিষ্কার করার খরচ অফার করেছে সংস্থা। সেই সঙ্গে ওই মহিলাকে সারাজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করেছে সংস্থা।

বন্ধ করুন