বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বুচা গণহত্যা নিয়ে এবার মুখ খুলল ভারত,ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়ে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি
বুচা গণহত্যার মর্মান্তিক সব দৃশ্য ক্রমেই প্রকাশ্যে আসছে (ছবি - রয়টার্স)

বুচা গণহত্যা নিয়ে এবার মুখ খুলল ভারত,ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়ে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি

  • ইউক্রেনের বুচা শহরে ইউক্রেনীয় নাগরিকদের গণহত্যার নিন্দা জানিয়ে ভারত এ বিষয়ে স্বাধীন নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে।

এবার বুচা গণহত্যা নিয়ে মুখ খুলল ভারত। ইউক্রেনের বুচা শহরে ইউক্রেনীয় নাগরিকদের গণহত্যার নিন্দা জানিয়ে ভারত এ বিষয়ে স্বাধীন নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে ভারতের রাষ্ট্রদূত টিএস তিরুমূর্তি এই বিষয়ে বলেন, ‘ সম্প্রতি ইউক্রেনের বুচা শহরে মানুষ নিহত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে যা খুবই উদ্বেগজনক। আমরা এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানাই এবং ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবিকে সমর্থন করি।’ পাশাপাশি ভারত নিজেদের পূর্ব অবস্থানে অনড় থেকে এও বলেছে, দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ অবিলম্বে শেষ হওয়া উচিত।

উল্লেখ্য, রাশিয়ার দখলকৃত শহর বুচায় একটি খুব বড় সমাধি পাওয়া গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে ইউক্রেনের সাধারণ নাগরিকদের খুন করে এই এই গণকবরে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছে। এই ঘটনার পর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তুতি নেবে বলে মনে করা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, আগামী দিনে বিষয়টি আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতেও যেতে পারে।

২৪ ফেব্রুয়ারি এই যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই ইউক্রেনসহ অনেক পশ্চিমা দেশ রুশ সেনার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ এনেছে। ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো সদস্যরা বুচা থেকে আসা ছবিগুলিকে ভয়ঙ্কর বলে বর্ণনা করেছে। প্রকাশ্যে আসা বহু ছবিতে দেখা যাচ্ছে, রাস্তায় মানুষের লাশ পড়ে আছে লাইন দিয়ে। এসব ছবি দেখে এই ঘটনাকে রাশিয়ার দ্বারা পরিচালিত যুদ্ধাপরাধ বলে আখ্যা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকেও যুদ্ধাপরাধী বলে আখ্যায়িত করেছে পশ্চিমা দেশগুলি। এসব যুদ্ধাপরাধের বিচার আন্তর্জাতিক আদালতে করার দাবি জানিয়েছে আমেরিকা। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে ভার্চুয়াল এক ভাষণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিও এই দাবি জানান। এদিকে এসব ছবি ও ভিডিও নিয়ে রাশিয়ার বক্তব্যও এসেছে। এসব ছবি ও ভিডিওকে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর আখ্যায়িত করে রাশিয়া বলেছে, ভিডিও ও ছবির ভিত্তিতে কোনও বিবৃতি দেওয়ার আগে আন্তর্জাতিক নেতাদেরও আমাদের কথা শুনতে হবে।

বন্ধ করুন