বাড়ি > ঘরে বাইরে > Unlock 2: ৩১ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ, চলবে না মেট্রো
কন্টেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত দিল্লির করোল বাগে ব্যারিকেড গড়ছে পুলিশ। ছবি: এএনআই।
কন্টেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত দিল্লির করোল বাগে ব্যারিকেড গড়ছে পুলিশ। ছবি: এএনআই।

Unlock 2: ৩১ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ, চলবে না মেট্রো

  • আজ, ১ জুলাই থেকে চালু হল নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার দ্বিতীয় পর্যায় ‘আনলক ২’ পর্ব। 

করোনা সংক্রমণ রোধে জারি করা নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার দ্বিতীয় পর্যায় ‘আনলক ২’ চালু হচ্ছে আজ, ১ জুলাই থেকে। এই পর্বের জন্য নতুন নিয়মালী প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। 

রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল প্রশাসনের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনার পরে ঠিক হয়েছে, আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত স্কুল-কলেজ সহ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

বন্দে ভারত অভিযানের আওতায় সীমিত আকারে চালু থাকছে আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা। 

সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে এই পর্বে বন্ধ থাকছে মেট্রো রেল, সিনেমা হল, জিমন্যাসিয়াম, সুইমিং পুল, বিনোদনমূলক পার্ক, থিয়েটার হল, পানশালা, প্রেক্ষাগৃহ, সমাবেশ, ইত্যাদি। একই কারণে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকছে বড় মাপের সামাজিক, রাজনৈতিক, ক্রীড়ামূলক, বিনোদনমূলক, শিক্ষামূলক, সংস্কৃতিমূলক এবং ধর্মীয় সমাবেশের উপরে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, পরবর্তীকালে পর্যায়ক্রমে এই সমস্ত সমাবেশের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তোলা হবে। 

মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ৩১ জুলাই পর্যন্ত কন্টেনমেন্ট জোনগুলিতে কঠোর ভাবে লকডাউন আরোপ করা থাকছে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশে রাজ্য অথবা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে স্থানীয় প্রশাসনকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের শর্তাবলী মেনে কন্টেনমেন্ট জোন চিহ্নিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে যে, লকডাউন ২ পর্বে রাতের কারফিউ জারি থাকবে রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত। বলা হয়েছে, শিল্পক্ষেত্রে বিভিন্ন শিফ্টে কাজ করা কর্মীদের যাতায়াত, জাতীয় ও রাজ্য সড়কে যাত্রী এবং পণ্য পরিবহণ ব্যবস্থা মসৃণ রাখতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে যে, এলাকার উপর নির্ভর করে দোকান-বাজার খোলা হবে। দোকানে একসঙ্গে ৫ জনের বেশি ব্যক্তির উপস্থিতিও নির্ভর করবে তার অবস্থানের উপরে। মেনে চলতে হবে সামাজিক দূরত্ব-সহ করোনা বিধিও।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন এবং রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সরকারি ওয়েবসাইটে কন্টেনমেন্ট জোন সম্পর্কে নিয়মিত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। এই সমস্ত অঞ্চলে গতিবিধির উপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকবে স্থানীয় প্রশাসনের। 

তবে আনলক ২ পর্বে আন্তঃরাজ্য এবং রাজ্যগুলির মধ্যে যাত্রী ও পণ্য চলাচলের উপরে আর কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। 

বন্ধ করুন