বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মেলেনি সরকারি নির্দেশ, দুর্গাপুজো ঘিরে চরম অনিশ্চয়তায় উদ্যোক্তারা
সরকারি নির্দেশাবলী প্রকাশ না হওয়ায় চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছেন উত্তর প্রদেশের দুর্গা পুজো আয়োজকরা।
সরকারি নির্দেশাবলী প্রকাশ না হওয়ায় চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছেন উত্তর প্রদেশের দুর্গা পুজো আয়োজকরা।

মেলেনি সরকারি নির্দেশ, দুর্গাপুজো ঘিরে চরম অনিশ্চয়তায় উদ্যোক্তারা

  • সরকারি নির্দেশাবলী প্রকাশ না হওয়ায় চলতি বছরে দুর্গাপুজো পালনে চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছেন উত্তর প্রদেশের আয়োজকরা।

এখনও পর্যন্ত কোনও সরকারি নির্দেশাবলী প্রকাশ না হওয়ায় চলতি বছরে দুর্গাপুজো পালনে চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছেন উত্তর প্রদেশের পুজো আয়োজকরা। 

গত বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, বাড়িতেই যেন উৎসব পালন করেন রাজ্যবাসী। উৎসব উদযাপনে কোনও রকম জনসমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে প্রশাসন। তবু দুর্গাপুজো সংক্রান্ত স্পষ্ট নির্দেশাবলী না পেলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

আগামী ২২ অক্টোবর থেরে ২৬অক্টোবর পর্যন্ত দুর্গাপুজো পালন নিয়ে সরকারি নির্দেশ পেতে বিভিন্ন জেলা প্রশাসনকে ইতিমধ্যে লিখিত আবেদন জানিয়েছে পুজো কমিটিগুলি। 

পরিস্থিতির চাপে পড়ে এ বছর ঘট পুজো দিয়েই শারদবন্দনা সারার পরিকল্পনা করেছেন লখনউ শহরের একাধিক পুজো কমিটি। থাকছে না প্রসাদ ভোগের ব্যবস্থা বা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাও। এমনকি পুষ্পাঞ্জলিতে ফুল ব্য।বহারও করাহবে না বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

লখনউয়ের জেলাশাসক অভিষেক প্রকাশ জানিয়েছেন, দুর্গাপুজো নিয়ে নির্দেশাবলী প্রকাশের বিষয়টি বিবেচনাধীন রয়েছে। 

গত ৪০ বছরের বেশি সাড়ম্বরে দুর্গাপুজো আয়োজন করছে রামকৃষ্ণ মঠ। কিন্তু এ বার অতিমারীর কারণে সে পরিকল্পনা বাতিল করা হয়েছে জানিয়ে মঠের প্রেসিডেন্ট স্বামী মুক্তিনাথানন্দ জানিয়েছেন, ‘আমরা Covid-19 জনিত সমস্ত সরকারি নিষেধাজ্ঞা মেনে চলব। মেনে চলা হবে সামাজিক দূরত্ববিধি এবং নজর রাখা হবে যাতে জনসমাবেশ না ঘটে।’

বন্ধ করুন