আলিগড়ে প্রতিবাদ-ফাইল ছবি
আলিগড়ে প্রতিবাদ-ফাইল ছবি

আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম বদল ও দেশবিরোধীদের কুকুরের মতো মারার সওয়াল বিজেপি মন্ত্রীর

দেশবিরোধীদের কুকুরের মতো মারা উচিত বলে মনে করেন উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী।

ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের শ্রমমন্ত্রী রঘুরাজ সিং। এর আগে তিনি বলেছিলেন যে যোগী আদিত্যনাথ ও নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে যারা স্লোগান দেন, তাদের জ্যান্ত পুঁতে ফেলা হবে। এবার তাঁর একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে তথাকথিত দেশবিরোধীদের কুকুরের মৃত্যু হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম বদলে হিন্দুস্তান বিশ্ববিদ্যালয় করারও প্রস্তাব দেন তিনি।

আলিগড়ের আতরৌলি শহরে একটি অনুষ্ঠানে এই কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী বলেন যে যারা দেশবিরোধী কাজ করে তাদের কুকুরের মতো মারা হবে। তিনি বলেন যে পুলিশকে বলা হয়েছে দেশবিরোধীদের এনকাউন্টারে গুলি করে মেরে দেওয়ার।

ঘুরাজ সিং আলিগড়ের পড়ুয়াদেরও শুধরে যাওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন যে অনেক দিন ধরে এই গুন্ডাগিরি সহ্য করা হয়েছে। আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটির নাম বদলে আমরা হিন্দুস্তান ইউনিভার্সিটি করে দিতে চাই যাতে এখান থেকে পড়ে ছাত্ররা পাকিস্তানি না তৈরী হয়, বলেন রঘুরাজ সিং।

দেশে থাকতে হলে ভারতীয় হিসাবে থাকতে হবে, পাকিস্তানি হিসাবে থাকা যাবে না বলে ভিডিওতে রঘুরাজ সিংকে বলতে শোনা যায়। মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি স্বীকার করেন যে এই কথাগুলি তিনি বলেছেন। তবে এগুলি দেশবিরোধীদের জন্য বলা, অন্যদের জন্য নয় বলে সাফাই রঘুরাজের। একই সঙ্গে তিনি জানান যে মোদী ও যোগীর বিরুদ্ধে স্লোগান দিলে জ্যান্ত পুঁতে ফেলার হুমকি থেকে তিনি সরছেন না।

সরকারিভাবে এই মন্তব্যে কোনও প্রতিক্রিয়া দিতে রাজি হয়নি আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন। আলিগড় ছাত্র ইউনিয়নের প্রাক্তন সভাপতি সলমন ইমতিয়াজ বলেন যে বিজেপির মানসিকতা এই থেকে প্রকাশ পাচ্ছে।


বন্ধ করুন