বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ধর্মীয় স্বাধীনতার অভাব, ফের চিন ও পাকিস্তানকে নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল আমেরিকা
মাইক পম্পেও  (REUTERS)
মাইক পম্পেও  (REUTERS)

ধর্মীয় স্বাধীনতার অভাব, ফের চিন ও পাকিস্তানকে নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল আমেরিকা

  • মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেও বলেন যে আমেরিকা বেশ কয়েকটি দেশকে বিশেষ উদ্বেগজনক তালিকায় রেখেছে আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা আইনের আওতায়।

চিন ও পাকিস্তানে ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে ফের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এর ফলে এই দেশগুলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে পারে আমেরিকা বলে মনে করা হচ্ছে। 

মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেও বলেন যে আমেরিকা বেশ কয়েকটি দেশকে বিশেষ উদ্বেগজনক তালিকায় রেখেছে আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা আইনের আওতায়। এগুলি হল চিন, এরিটরিয়া, ইরান, নাইজেরিয়া, মায়ানমার, উত্তর কোরিয়া, পাকিস্তান, সৌদি আরব, তাজাকিস্তান ও তুর্কেমেনিস্তান। এই সব দেশের মানুষদের পছন্দের ধর্ম পালন করার ক্ষেত্রে রাষ্ট্রের তরফ থেকে নানা বাধা সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে তিনি জানান। অতীতেও চিন, পাকিস্তান, মায়ানমার ও সৌদি এই তালিকায় থেকেছে, কিন্তু নিজেদের কূটনৈতিক স্বার্থের কথা মাথায় রেখে এদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি আমেরিকা। 

কোমোরাস, কিউবা, নিকারাগুয়া ও রাশিয়াকে বিশেষ লিস্টে রাখা হয়েছে কারণ এসব দেশে ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর মারাত্মক রকমের আঘাত এসেছে কিন্তু সরকার কিছুই করেনি। পম্পেও বলেন যে সারা বিশ্বে যেখানে ধর্মীয় হিংসা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে সরব হতে থাকবে আমেরিকা।

US Commission on International Religious Freedom (USCIRF) ২০০২ সাল থেকে পাকিস্তানকে বিশেষ উদ্বেগের প্রয়োজনীয় রাষ্ট্রের তালিকাভুক্ত করছে। যদিও আমেরিকা সরকার ২০১৮ সালে প্রথমবার তাদের সেই তালিকায় রেখেছে। মুলত যে ভাবে আহমাদেয়ি সহ সমস্ত সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে অত্যাচার হয়ে পাকিস্তানে, সেই কারণেই এই লজ্জার তালিকায় আছে পড়শি রাষ্ট্র। চিনে যেভাবে মুসলমান ও তিব্বতের বৌদ্ধদের বিরুদ্ধে আচরণ করা হয়েছে সেই কারণেই শি জিনপিংয়ের দেশ এই তালিকার অংশ। 

বন্ধ করুন