বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Thomas Lee: গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা! মার্কিন কোটিপতি ফিনান্সার থমাস লি প্রয়াত, উঠছে বহু প্রশ্ন

Thomas Lee: গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা! মার্কিন কোটিপতি ফিনান্সার থমাস লি প্রয়াত, উঠছে বহু প্রশ্ন

থমাস লি।

মৃত্যুকালে থমাস এইচ লিয়ের বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। প্রশ্ন উঠছে কী এমন ঘটনা ঘটেছিল, যারফলে থমাস লিকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হল? রহস্য সেখানেই।স্বনামধন্য এই ফিনান্সার বলছেন, নিউ ইয়র্ক সিটির চিফ মেডিক্যাল অফিস থেকে জানানো হয়েছে, তাঁর মৃত্যু নিজের দিকে বন্দুক তাক করে আত্মহত্যার জেরেই ঘটেছে। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে লিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

মার্কিন কোটিপতি ব্যবসায়ী থমাস লিয়ের প্রয়াণ সংবাদে গোটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চাঞ্চল্য। থমাস এইচ লি সেদেশের একজন নামী ফিনান্সার হিসাবে পরিচিত। প্রাইভেট ইকুইটি বিনিয়োগের জনক তিনি। আর এদিন এই মার্কিন কোটিপতি মহলের এই স্বনামধন্য ব্যক্তিত্বের প্রয়াণ সংবাদ আসে। জানা গিয়েছে, কোটিপতি এই ফিনান্সারের মৃত্যু আত্মহত্যার ফলে হয়েছে।

মৃত্যুকালে থমাস এইচ লিয়ের বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। প্রশ্ন উঠছে কী এমন ঘটনা ঘটেছিল, যার ফলে থমাস লিকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হল?রহস্য সেখানেই। স্বনামধন্য এই ফিনান্সার বলছেন, নিউ ইয়র্ক সিটির চিফ মেডিক্যাল অফিস থেকে জানানো হয়েছে, তাঁর মৃত্যু নিজের দিকে বন্দুক তাক করে আত্মহত্যার জেরেই ঘটেছে। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে লিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে পরিবার। লিয়ের বিনিয়োগের সংস্থা অ্যাভিনিউ ম্যানহ্যাটেন অফিসে তাঁকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। অ্যাভিনিউ ম্যানহ্যাটেনের হেডকোয়াটার্সে তাঁকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তখনই পুলিশকে ৯১১ তে পোন করেন উপস্থিত অনেকে। মুহূর্তে আসে পুলিশ। দেখতে পায় ওই পরিস্থিতি। জানা গিয়েছে, তঁর অফিসে লিকে বেলা ১১ টা নাগাদ মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

থমাস লিয়ের মৃত্যু নিয়ে তাঁর পরিবার জানিয়েছে, ‘পরিবার ভীষণভাবে শোকাহত টমের মৃত্যু ঘিরে’। পরিবার জানিয়েছে, ‘আমাদের হৃদয় দুঃখে বিদারিত। আমরা আশা করব আমাদের ব্যক্তিগত সময়ের সম্মান করা হবে। আমাদের শোক প্রকাশের সময় দেওয়া হবে।’ উল্লেখ্য়, বাণিজ্য জগতে বিখ্যাত লি ইকুইটির প্রধান হলেন থমাস লি। তাঁর হাত ধরেই শুরু হয়েছিল ওই প্রতিষ্ঠান। ২০০৬ সালে শুরু হওয়া সেই প্রতিষ্ঠানের অন্যতম নামি হোথা ছিলেন থমাস লি। ১৯৭৪ সালে তাঁর হাতে তৈরি লি পার্টনার্সের রয়েছে বিশ্বজোড়া নাম।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন