বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতের অনুমতি ছাড়াই লাক্ষাদ্বীপের কাছে ঘুরে বেড়াল আমেরিকা

ভারতের অনুমতি ছাড়াই লাক্ষাদ্বীপের কাছে ঘুরে বেড়াল আমেরিকা

অনুমতি ছাড়াই ভারতের নিজস্ব অর্থনৈতিক অঞ্চলে একটি মার্কিন রণতরী মহড়া চালাল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

জো বাইডেনের শাসনকালের শুরুতেই কি কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়তে চলেছে ভারত-আমেরিকা?

রাহুল সিং এবং রেজাউল লস্কর

জো বাইডেনের শাসনকালের শুরুতেই কি কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়তে চলেছে ভারত-আমেরিকা? অনুমতি ছাড়াই ভারতের নিজস্ব অর্থনৈতিক অঞ্চলে একটি মার্কিন রণতরী মহড়া চালানোর পর এমনই শঙ্কা তৈরি হয়েছে। যদিও আমেরিকার দাবি, আন্তর্জাতিক আইন মেনেই চালানো হয়েছে সেই মহড়া।

গত বুধবার একটি বিবৃতিতে মার্কিন নৌসেনার সেভেনথ ফ্লিটের (সপ্তম বাহিনী) তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, লাক্ষাদ্বীপের পশ্চিমে ১৩০ নটিক্যাল মাইল দূরত্বের জলসীমায় চলাচলের অধিকার এবং স্বাধীনতা তুলে ধরেছে ইউএসএস জন পল জোনস। সঙ্গে হুঁশিয়ারির সুরে জানানো হয়েছে, সমুদ্রপথে ভারত যে অত্যধিক দাবি করে, তা চ্যালেঞ্জ করেই সেই মহড়া চালানো হয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক আইনে প্রদত্ত অধিকার, স্বাধীনতা এবং সমুদ্রের ব্যবহারের উপর ভিত্তি করে সেই অভিযান চালানো হয়েছে বলে দাবি করেছে মার্কিন নৌসেনা।

বিষয়টির সঙ্গে অবহিত নৌসেনা আধিকারিকরা জানিয়েছেন, প্রতিটি উপকূলবর্তী দেশের উপকূল থেকে ২০০ নটিক্যাল মাইল বা ৩৭০ কিলোমিটার এলাকাকে সংশ্লিষ্ট দেশের নিজস্ব অর্থনৈতিক অঞ্চল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ওই জলসীমার মধ্যে তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস এবং মাছ-সহ যাবতীয় সম্পদের উপর একমাত্র অধিকার আছে ওই দেশেরই। স্বভাবতই ভারতের নিজস্ব অর্থনৈতিক অঞ্চলে যে কোনও সামরিক গতিবিধির জন্য আগেভাগে নয়াদিল্লির অনুমতির প্রয়োজন হয়। আর আমেরিকা ঠিক সেই কাজটাই করেনি। তবে বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় নৌসেনা বা বিদেশ মন্ত্রকের তরফে সরকারিভাবে এখনও কোনও মন্তব্য করা হয়নি। 

তবে আমেরিকার কাছে এরকম মহড়া নতুন কিছু নয়। ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে দক্ষিণ চিন সাগরে একাধিক এরকম মহড়া চালিয়েছে আমেরিকা। সেক্ষেত্রেও আমেরিকার তরফে দাবি করা হয়, জলপথে বেজিং যে অত্যধিক দখলের দাবি করে তার প্রত্যুত্তরে মহড়া চালানো হয়েছে। আর সেখানেই প্রশ্ন তুলেছেন নৌসেনার প্রাক্তন প্রধান অ্যাডমিরাল অরুণ প্রকাশ (অবসরপ্রাপ্ত)। শুক্রবার টুইটারে তিনি বলেন, 'ভারতের জন্য সেভেনথ ফ্লিটের বার্তা কী?' রীতিমতো ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি জানান, ভারত ১৯৯৫ সালের রাষ্ট্রসংঘের সমুদ্র সংক্রান্ত আইনে সমর্থন করেছে। কিন্তু এখনও সেই কাজটা করতে উঠতে পারেনি আমেরিকা। ভারতের অভ্যন্তরীণ আইন লঙ্ঘন মার্কিন অভিযান অত্যন্ত বাজে উদাহরণ। আবার সেটা বিবৃতি জারি করে দাবি করার জন্যও তোপ দেগেছেন তিনি।

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

ব্যবসায়ীকে গুলি করে টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ TMCP নেতার বিরুদ্ধে, প্রকাশ্যে ভিডিয়ো ট্রাম্পের সমর্থনে আইকনিক স্টাইলে গেঞ্জি ছিঁড়লেন WWE স্টার হাল্ক হোগান নিজের স্ত্রী ভেবে অন্য মহিলাকে চুম্বনের চেষ্টা বাইডেনের? নয়া আঙ্গিকে ফিরলেন স্টুয়ার্ট ব্রড, তারকাকে অনন্য সম্মান নটিংহামশায়ারের বলিউডি গানের সঙ্গে লালনগীতি! সাই-কার্তিক দাস বাউলের পারফরমেন্সে মুগ্ধ ইমন-অন্তরা পরপর ২দিন বৃদ্ধির পর আজ কিঞ্চিৎ সস্তা সোনা, কলকাতায় আজ কত রেট হলুদ ধাতুর? চাঁদিপুরা ভাইরাস আতঙ্কের কারণ হয়ে উঠেছে, এর সম্পর্কে কী কী জেনে রাখা দরকার গলায় গাঁদার মালা, হলুদে মাখামাখি সোহিনী-শোভন! ভেজা শরীরে বউকে আদরে ভরালেন গায়ক জিও, এয়ারটেলের বাজার খাচ্ছে BSNL, কীভাবে ২৭ লাখ নতুন গ্রাহক পেল সরকারি সংস্থা মানিকচকের ঘটনায় সিটুর বনধে প্রভাব পড়ল না, গোটা এলাকায় থমথমে পরিবেশ

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.