বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নিরাপত্তা পরিষদে মুখ পুড়ল পাকের, ভারতীয় নাগরিককে জঙ্গি বলার অপচেষ্টা! কে তিনি?
কাশ্মীরে সদা সতর্ক নিরাপত্তাবাহিনী। প্রতীকী ছবি/ANI) (HT_PRINT)

নিরাপত্তা পরিষদে মুখ পুড়ল পাকের, ভারতীয় নাগরিককে জঙ্গি বলার অপচেষ্টা! কে তিনি?

  • পাকিস্তান চিনের সহযোগিতায় ওই গোবিন্দাকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী বলে তুলে ধরার পরিকল্পনা নিয়েছিল। ২০২০ সালেও পাকিস্তান ঠিক একই মতলব এঁটেছিল। কিন্তু সেই ছকও ভেস্তে যায়। 

রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের মিটিংয়ে বড় অস্বস্তির মুখে পড়ল পাকিস্তান।ভারতীয় নাগরিক গোবিন্দা পট্টনায়েক দুগ্গিভাসলাকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি হিসাবে প্রমাণ করার জন্য় উঠে পড়ে লেগেছিল পাকিস্তান। তাদের দাবি একাধিক সন্ত্রাসবাদী হামলায় নাকি গোবিন্দার হাত রয়েছে। তবে নিরাপত্তা পরিষদের তিন স্থায়ী সদস্য আমেরিকা, ইংল্যান্ড, ফ্রান্স ও আলবেনিয়ার সহায়তায় পাকিস্তানের এই দাবিকে প্রতিহত করল ভারত।

পাকিস্তান গোবিন্দার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিল যে, তিনি আত্মঘাতী হামলার অন্যতম মূল চক্রী। ২০১৮ সালের জুলাই মাসে বালুচিস্তানে হামলার ঘটনাতেও নাকি তার হাত রয়েছে। ২০১৮ সালে অগস্ট মাসে পাকিস্তানে একটি বাসে হামলা চালানো হয়েছিল। সেই সময় ওই বাসে চিনা নাগরিকরা ছিলেন। সেই ঘটনাতেও ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তোলে পাকিস্তান।বার বার এই দাবি তুলতে থাকে পাকিস্তান। মূলত ভারতীয় ওই নাগরিককে কাঠগড়ায় তুলতে নানা প্রচেষ্টা জারি ছিল পাকিস্তানের তরফে।

কিন্তু একাধিক স্থায়ী সদস্যের সহযোগিতায় পাকিস্তানের সেই ছক ভেস্তে দেয় নিউ দিল্লি। কিন্তু কে এই গোবিন্দা? সূত্রের খবর তিনি কাবুলের একটি কনসালটেন্সি কোম্পানিতে তিনি ২০১৮ সালে কাজ করতেন।

তাকে পাক এজেন্সি অপহরণ করতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল। এরপর ভারতের বাহিনী ২০১৯ সালে তাকে পাকিস্তান থেকে বের করে নিয়ে চলে আসে। এদিকে পাকিস্তান চিনের সহযোগিতায় ওই গোবিন্দাকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী বলে তুলে ধরার পরিকল্পনা নিয়েছিল। ২০২০ সালেও পাকিস্তান ঠিক একই মতলব এঁটেছিল। কিন্তু সেই ছকও ভেস্তে যায়। ইউনাইটেড নেশনসে ভারতের প্রতিনিধি সাফ জানিয়ে দেন, একটা ধর্মীয় রঙ লাগিয়ে পাকিস্তান একজন ভারতীয় নাগরিককে সন্ত্রাসবাদী হিসাবে তুলে ধরার চেষ্টা করছিল। কিন্তু সেটা বিফলে গিয়েছে।এজন্য কাউন্সিল মেম্বারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

 

বন্ধ করুন