বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'মাল, পটেগি কেয়া!' প্রজাতন্ত্র দিবসের ট্যাবলোতে এইসব শব্দ! বিতর্ক তুঙ্গে
শ্রীনগরে প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান। (PTI Photo) (PTI)
শ্রীনগরে প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান। (PTI Photo) (PTI)

'মাল, পটেগি কেয়া!' প্রজাতন্ত্র দিবসের ট্যাবলোতে এইসব শব্দ! বিতর্ক তুঙ্গে

  • ট্যাবলোতে দেখানো হয়েছিল, দুটি ছেলে হেঁটে যাচ্ছে। সেই সময় তারা একটি মেয়েকে দেখে কিছু অশ্লীল মন্তব্য করে।

প্রজাতন্ত্র দিবসের ট্যাবলোতে নারীদের সম্পর্কে আপত্তিকর শব্দ ব্যবহারের অভিযোগ। নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের এই ট্যাবলোকে ঘিরে তুমুল জলঘোলা শুরু হয়েছে মধ্যপ্রদেশের ছতরপুর জেলায়। সূত্রের খবর ওই ট্যাবলোতে পটেগি,মাল জাতীয় শব্দ ব্যবহার করা হয়েছিল। এনিয়ে ইতিমধ্যেই বিজেপির পাশাপাশি কংগ্রেস ও ওমেন রাইটস অ্যাক্টিভিস্টরা আপত্তি তুলেছেন। ঠিক কি ছিল ট্য়াবলোতে?

ট্যাবলোতে দেখানো হয়েছিল, দুটি ছেলে হেঁটে যাচ্ছে। সেই সময় তারা একটি মেয়েকে দেখে কিছু অশ্লীল মন্তব্য করে। এদিকে মেয়েটি মার্শাল আর্টের মাধ্যমে তাদেরকে কাবু করে। তারপরই ক্ষমা চায় ছেলেদুটি। এদিকে এই পারফরম্যান্সের কো অর্ডিনেটর প্রাচি সিং চান্ডেল জানিয়েছেন, সচেতনতা বৃদ্ধির জন্যই এই ধরনের ট্য়াবলো করা হয়েছিল। মেয়েদের মার্শাল আর্ট শিখে রাখা কতটা জরুরী সেই বার্তাই দিতে চেয়েছি আমরা। কিন্তু তাতে যদি কারোর আপত্তি থাকে তবে আমাদের কিছু করার নেই।

এদিকে ওমেন রাইটস অ্য়াক্টিভিস্ট রলি শিবহারে বলেন, সকলেই বাস্তবটা বোঝেন। পারফরম্যান্সের দেড় মিনিট ধরে দেখা গেল ছেলেগুলো মেয়েদেরকে টিটকিরি করছে। সবথেকে যন্ত্রণার হচ্ছে মাল, কালে বেলুনওয়ালি, পটেগি কেয়া, নম্বর মাঙ্গ রহে হ্যায় জান থোরে মাঙ্গ রহে হ্যায়, এইসব শব্দ ব্যবহার করছিল ছেলেগুলো। আর হো হো করে হাসছিলেন দর্শকরা। সব শেষে মেয়েটি ধাক্কা মারল ছেলেটাকে। আর উদ্যোক্তারা ভাবলেন এটাই নাকি বার্তা দিতে চেয়েছেন তাঁরা। বিজেপি নেত্রী অর্চনা গুড্ডু বলেন, এটা দেখে খুব লজ্জা লাগছিল। কংগ্রেসের দাবি, মেয়েদের প্রতি অশ্লীল শব্দ ব্যবহার করা হল আর অফিসারদের শাস্তি না দিয়ে সংবর্ধনা দেওয়া হল। এটা কেমন পদক্ষেপ? 

 

বন্ধ করুন