বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Uttar Pradesh: লকআপে বেধড়ক মার পুলিশের, চিৎকারেও থামছে না, যোগীরাজ্যের দাওয়াই!
লকআপে বন্দি পেটানোর ছবি। (সৌজন্য় টুইটার, অখিলেশ যাদব)

Uttar Pradesh: লকআপে বেধড়ক মার পুলিশের, চিৎকারেও থামছে না, যোগীরাজ্যের দাওয়াই!

  • লকআপের মধ্যে বেদম মার। সেই ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন অখিলেশ যাদব। আর পুলিশের সেই ওষুধ প্রয়োগের ভিডিয়োকে ঘিরে শোরগোল বিভিন্ন মহলে।

হাতে ফাইবারের লাঠি। সেই লাঠি দিয়ে দমাদম মার। বাবা গো! মা গো বলে চিৎকার করছেন কয়েকজন। কিন্তু পুলিশ তাতেও থামছে না। লাঠি তুলে একের পর এক মার। সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিয়ো সামনে এসেছে। তবে এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। দাবি করা হচ্ছে এই ভিডিয়োটি উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরের কোতোয়ালি থানার। সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব এই ভিডিয়োটি টুইটারে পোস্ট করেছেন।

তিনি লিখেছেন, লকআপে বন্দি মৃত্যুর ঘটনায় উত্তরপ্রদেশ শীর্ষে। মানবাধিকার লঙ্ঘনে শীর্ষে। দলিত নিপীড়নেও শীর্ষে। তিনি লিখেছেন, লকআপে এই ধরনের ঘটনার বিরুদ্ধে সরব হওয়া দরকার। না হলে ন্যায়বিচার পাবেন না ইকবালরা। রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অখিলেশ যাদব।

এদিকে পয়গম্বর মন্তব্যকে কেন্দ্র করে বিতর্কের জেরে গোটা দেশের মতো উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন এলাকাতেও অশান্তি মাথাচাড়া দেয়। তবে পুলিশ সেখানে কড়া হাতে অশান্তি দমন করে বলে দাবি করা হচ্ছে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে ২২৫জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতারও করে পুলিশ। তবে কি সেই বিক্ষোভকারীদেরই এভাবে পেটানো হচ্ছিল লক আপে?

তবে এনিয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু জানা যায়নি। সাহারানপুরের পুলিশ কর্তার দাবি, এটি সাহারানপুরের ঘটনা নয়। এই ঘটনা কোথাকার তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। পাশাপাশি কোনও পুলিশকর্মী এই ঘটনায় দোষী প্রমাণিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও পুলিশ জানিয়েছে।

বন্ধ করুন